প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কাতালোনিয়ার পার্লামেন্টের স্পিকার ও চার এমপির জামিন

আঞ্জুমান আরা অনু: কাতালোনিয়া পার্লামেন্টের সাবেক স্পিকার এবং চার এমপিকে জামিনে মুক্তি দিয়েছে স্পেনের হাইকোর্ট। তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ খতিয়ে দেখার পর সর্বোচ্চ আদালত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

গত মাসে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণাকে কেন্দ্র করে এই নেতাদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ, দেশদ্রোহিতা, সরকার তহবিলের অপব্যবহার, আইন অমান্য, এবং বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগ আনে স্পেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, স্পিকার ফোর্কাদেলকে জামানত হিসেবে দেড় লাখ ইউরো এবং বাকি চার এমপিকে ২৫ হাজার ইউরো জামানত দেওয়ার শর্তে জামিনের আদেশ দেয়া হয়েছে।

জামানতের অর্থ পরিশোধ না করা পর্যন্ত তাদের মাদ্রিদের বাইরে অবস্থিত আলকালা মেকো কারাগারে রাখা হবে। তবে কাতালোনিয়া সরকার অন্য একজন এমপিকে বিনা জামানতে জামিন দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি পাবলো লারেরা এবং দুই প্রসিকিউটর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। বিচারক পাবলো লারেনা রায়ে বলেন, “অভিযুক্ত সবাই কথা দিয়েছে, হয় তারা রাজনীতি থেকে সরে যাবে নতুবা রাজনীতিতে সক্রিয় থাকলে ভবিষ্যতে আর কখনও সংবিধান বিরোধী কোনো কাজ করবে না।”

এর আগে শর্তসাপেক্ষে কাতালোনিয়ার ক্ষমতাচ্যুত নেতা কার্লেস পুজেমন এবং তার চার মন্ত্রীকে মুক্তি দেন বেলজিয়ামের এক বিচারপতি। ১৫ দিনের মধ্যে তাদের আদালতে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে।

ইউরোপীয় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করার পর গত রোববার বেলজিয়াম পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন পুজেমন এবং তার চার সাবেক মন্ত্রী। আদালতের অনুমিত ছাড়া তাদের বেলজিয়াম ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।
স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত কাতালোনিয়ায় স্বাধীনতার দাবীতে অক্টোবরের ১ তারিখে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে ৯০ শতাংশ ভোটার স্বাধীনতার পক্ষে রায় দেয়। এর কয়েকদিন পরই স্বাধীনতার ঘোষণা দেয় কাতালোনিয়ার আঞ্চলিক পার্লামেন্ট। কিন্তু কাতালোনিয়া সরকারের ওই ঘোষণাকে অসাংবিধানিক ঘোষণা দিয়ে কেন্দ্রীয় শাসন জারি করে স্পেন এবং কাতালোনিয়ার নেতা কার্লেস পুজেমনকে বরখাস্ত করা হয়।

এখনও কাতালানের বরখাস্ত হওয়া সরকারের আট সদস্য এবং স্বাধীনতাপন্থি প্রধান দুই দলের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের প্রধান দুই নেতা আদালতের মুখোমুখি হওয়ার অপেক্ষায় আছেন। তাদের বিরুদ্ধেও হাইকোর্টে বিদ্রোহ ও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে।

আনিস/

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত