প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫ মাসে নিখোঁজ ১৬ : তিনজনের সন্ধান

তারেক : গত পাঁচ মাসে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, ছাত্র, তরুণসহ অন্তত ১৬ জন। এদের উদ্ধারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হলেও এখন পর্যন্ত সন্ধান মিলেছে মাত্র তিনজনের।

চলতি বছরের জুন মাস থেকে গত ৭ নভেম্বর পর্যন্ত এসব মানুষ নিখোঁজ হয়েছেন। এদের মধ্যে উদ্ধার হয়েছেন আইএফসি ব্যাংকের কর্মকর্তা শামীম আহমেদ এবং জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার মেয়র ও ব্যবসায়ী রুকুনুজ্জামান। তবে বনানী থেকে নিখোঁজ ঈমাম হোসেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) হাতে গ্রেফতারের পর থেকে কারাগারে রয়েছেন। বাকিরা এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

সর্বশেষ গত ৭ নভেম্বর নিখোঁজ হন রাজধানীর নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোবাশ্বার হাসান সিজার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন শেষে তিনি যুক্তরাজ্য থেকে স্নাত্তকোত্তর ও অস্ট্রেলিয়ায় পিএইচডি করেছেন। দেশে ফিরে বছরখানেক আগে সিজার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ৭ নভেম্বর সরকারের এটু্আই প্রকল্পের একটি সভায় অংশ নিতে তিনি আগারগাঁও আইডিবি ভবনে যাওয়ার উদ্দেশে বের হন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন।

এদিকে, নিখোঁজ থাকাদের মধ্যে দুই/তিনজন জঙ্গিবাদে জড়িত- এমন আশঙ্কা করছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের সন্ধানে তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় কাজ করছে পুলিশ-র্যাবসত গোয়েন্দা সংস্থাগুলো।

থানা পুলিশ ও নিখোঁজদের স্বজনদের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২২ আগস্ট বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক নির্বাহী সদস্য ও সিএনজি কনভারশন ব্যবসায়ী সৈয়দ সাদাত আহমেদকে অপহরণ করা হয়। ওইদিন বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের বনানী ফ্লাইওভার এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। তিনি এবিএন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।
এর চারদিন পর গত ২৬ আগস্ট সন্ধ্যায় কানাডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইশরাক আহম্মেদ (২০) ছুটি কাটাতে ঢাকা এসে ধানমন্ডি থেকে নিখোঁজ হন। পরে তার সন্ধান চেয়ে ধানমন্ডি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন ইশরাকের বাবা জামাল উদ্দীন।

ইশরাক ঢাকার ম্যাপল লিফ স্কুল থেকে এ লেভেল পাস করে গত বছর কানাডার মন্ট্রিল শহরের ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। গত জুনে ছুটিতে বাড়ি আসেন তিনি। ইশরাক জঙ্গিবাদে জড়িত ছিলেন নাকি অপহৃত হয়েছেস- তা নিশ্চিত নয় র‌্যাব-পুলিশ।

গত ২৭ আগস্ট রাত পৌনে ৯টার দিকে পার্টি অফিসে কাজ শেষ করে আমিন বাজারের বাসায় ফেরার উদ্দেশে রওনা হন কল্যাণ পার্টির মহাসচিব আমিনুর রহমান। এরপর থেকে তার কোনো খোঁজ মেলেনি। পরদিন রাতে পল্টন থানায় জিডি করা হলেও পুলিশ এখন তার কোনো খোঁজ দিতে পারেনি।

একইদিন বাংলাদেশে বেলারুশের অনারারি কনসাল ও আরএমএম লেদার ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) অনিরুদ্ধ কুমার রায় গুলশান থেকে নিখোঁজ হন। গুলশান ইউনিয়ন ব্যাংকের সামনে থেকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তাকে তুলে নেয়া হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। ওইদিনই এ ঘটনায় গুলশান থানায় একটি জিডি করেন অনিরুদ্ধ রায়ের ভাগ্নে কল্লোল হাজরা।
গত ৭ অক্টোবর রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে তাবলীগে যাবার কথা বলে বেরিয়ে নিখোঁজ রয়েছেন আরাফাত রহমান নামে এক যু্বক। তার বাবা মমিনুল হক জানান, স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে আরাফাত মোহাম্মদপুর বছিলা মডেল টাউনে থাকতেন। ৭ অক্টোবর সাভারের আমিন বাজারে তাবলীগে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। এ ঘটনায় তিনদিন পর ১০ অক্টোবর মোহাম্মদপুর থানায় একটি জিডি করা হয়।

গত ১০ অক্টোবর রাজধানীর মতিঝিলে কর্মস্থল থেকে বের হওয়ার পরই নিখোঁজ হন অনলাইন সংবাদমাধ্যম পূর্বপশ্চিমবিডি ডট নিউজের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক উৎপল দাস। এরপর প্রায় এক মাস পার হলেও তার সন্ধান মেলেনি। নিখোঁজের ঘটনায় গত ১২ অক্টোবর মতিঝিল থানায় জিডি করেছে পূর্বপশ্চিমবিডি ডট নিউজ কর্তৃপক্ষ। আরেকটি জিডি করেছে তার পরিবার।

গত ১৫ অক্টোবর সকালে অফিস যাবার পথে রিয়াসাত এলাহি চৌধুরী (২৮) নামে এক একটি প্রযুক্তিপণ্য বিতরণকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা নিখোঁজ হন। এরপর থেকে তার সন্ধান পাননি বলে জানিয়েছেন তার মা সৈয়দা হোসনে জাহান। ছেলের সন্ধান চেয়ে তেজগাঁও থানায় একটি জিডি করেছেন তিনি।

গত ২৭ অক্টোবর দিবাগত রাত ১২টা ১০ মিনিটে ঢাকার সূত্রাপুর থানার ফরাশগঞ্জের প্রিয় বল্লব জিউ মন্দিরের ফটক থেকে একটি কালো গাড়িতে তুলে নেওয়া হয় বাংলাদেশ জনতা পার্টির (বিজেপি) সভাপতি মিঠুন চৌধুরী ও তার সহকর্মী আশিক ঘোষকে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে তাদের নিয়ে যাওয়া হয়। তবে এ ঘটনায় সূত্রাপুর থানায় জিডি নেয়নি বলে অভিযোগ স্ত্রী সুমনা চৌধুরীর।

সর্বশেষ গত ৭ নভেম্বর বনশ্রীর বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক মোবাশ্বার হাসান সিজার। ওইদিন সন্ধ্যার পর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে। গত ৪৮ ঘণ্টায় এ ঘটনার কোনো হদিস দিতে পারেনি পুলিশ।

এর আগে চলতি বছরের জুনে রাজধানীর বনানী থেকে একইদিনে ইমাম হোসেন (২৭), তাওহীদুর রহমান (২৬), কামাল হোসেন (২৪) ও হাসান মাহমুদ (২৬) নামে চার যুবক নিখোঁজ হন। তাদের মধ্যে ইমাম হোসেন ও হাসান মাহমুদ বনানীর ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ থেকে স্নাতক শেষে করেছেন। কামাল হোসেন নিউ ইস্কাটনের দিলু রোডের জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদ্রাসা থেকে দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন। এদের মধ্যে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতারের পর কারাগারে রয়েছেন ইমাম হোসেন। বাকি তিনজন এখন পর্যন্ত নিখোঁজ।

এদিকে, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাজধানীর উত্তরা থেকে নিখোঁজ হন জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার মেয়র ও ব্যবসায়ী রুকুনুজ্জামান। পরে ২৭ সেপ্টেম্বর দুপুর দেড়টার দিকে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের একটি চা বাগান থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

গত ২৩ আগস্ট রাজধানীর পল্টন থেকে নিখোঁজ হন আইএফসি ব্যাংকের কর্মকর্তা শামীম আহমেদ। স্বামীর সন্ধান চেয়ে পল্টন থানায় জিডি করেন স্ত্রী শিল্পী আহমেদ। এক সপ্তাহ পর বাসায় ফেরেন নিখোঁজ শামীম। পরে তিনি জানান, কে বা কারা তাকে তুলে নিয়ে গিয়েছিলেন। তবে তার সাথে খারাপ আচরণ করা হয়নি।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা বলেন, নিখোঁজদের সন্ধানে কাজ করছে গোয়েন্দা বিভাগ।

যোগাযোগ করা হলে র‌্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে যথাসম্ভব চেষ্টা চলছে। তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে নিখোঁজদের উদ্ধারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া অ্যা্ন্ড পিআর) সহেলী ফেরদৌস বলেন, কে কীভাবে নিখোঁজ হচ্ছেন তা বলা মুশকিল। কেউ যদি স্বেচ্ছায় নিখোঁজ হন তাদের বের করা কঠিন। খুঁজে বের করা না পর্যন্ত স্পষ্ট কারণ বলাও সম্ভব না। তবে পুলিশ নিখোঁজদের সন্ধানে তৎপর রয়েছে।

এ ব্যাপারে এক অনুষ্ঠানে সম্প্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, কোনো নিখোঁজই কাম্য নয়, সিজার নামে শিক্ষক নিখোঁজ হয়ে থাকলে তাকে খুঁজে বের করা হবে। সব নিখোঁজের সন্ধানে সংশ্লিষ্ট বাহিনী কাজ করছে।

সূত্র : জাগোনিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ