প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হিমায়িত মাছের গুনাগুন নষ্ট হয়না, দাবি বিজ্ঞানীদের

সজিব সরকার : আধুনিক এক গবেষণা মতে, গুনাগুনের দিক থেকে তাজা ও হিমায়িত মাছের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই কারণ মাছ হিমায়িত করে রাখলে তার কোন গুনাগুন নষ্ট হয়না।

গবেষকদের মতে, তাজা মাছ ধরার পর মাত্র ২ বা ৩ দিন খাওয়ার উপযোগী থাকে কিন্তু মাছ হিমায়িত করে রাখলে তা ৪-৬ মাস পর্যন্ত খাওয়া যায়।
সারা বছর মাছ হিমায়িত করে তার গুনাগুন কিভাবে রক্ষা করা যেতে পারে তা নিয়ে নরওয়ের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পরীক্ষা করেছে। এ গবেষণার ফলে সেসব মানুষ অনেকটা নিশ্চিন্ত থাকতে পারবে যারা একসাথে অনেক মাছ কিনে হিমায়িত করে রাখে কারণ তারা এখন গুনাগুনের ব্যাপারে মোটেও চিন্তিত থাকবে না।

তবে হিমায়িত করার ব্যাপারে কিছু সতর্কতা খেয়াল করতে হবে। যেমন- মাছ ধরার পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাদের হিমায়িত করার ব্যবস্থা করতে হবে। কোন প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই পুরোটা সময় স্থিতিশীল ও কম তাপমাত্রায় হিমায়িত করতে হবে। ডেইরি মেইল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ