প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভালুকায় মেয়ের বিয়ে নিয়ে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

আবুল বাশার শেখ, ভালুকা(ময়মনসিংহ) :ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার পাড়াগাঁও শিরিরচালা গ্রামে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা যায়, উপজেলার শিরিরচালা গ্রামে মেয়ের বিয়ে দেয়া নিয়ে ঝগড়ায় আসমা খাতুন (৩৮) নামে পাঁচ সন্তানের জননীকে মারধোর করে হত্যা করেছে তার স্বামী একই গ্রামের সালাউদ্দিন। অভিযুক্ত সালাউদ্দিন মৃত মতিন মৌলবীর ছেলে এবং সে বাহ্মনবাড়িয়ায় পল্লী বিদ্যুতে চাকুরি করে। গতকাল বুধবার (৮নভেম্বর) রাতে বেধরক মারধোর করার পর গুরুতর আহত অবস্থায় আসমা খাতুনকে প্রথমে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে। এ সময় সাথে থাকা মৃতের স্বামী সালাউদ্দিনকে আটক করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ।
নিহতের ভাগনে আলম মিয়া ও প্রতিবেশীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, সালাউদ্দিনের মেয়ে …(১৪) তালাব হোসাইনিয়া ফাজিল মাদরাসার নবম শ্রেনীর ছাত্রী। পার্শ্ববতী এলাকার এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে বিয়ের কথাবার্তা চলছিল। কিন্তু মেয়ের মা বিয়েতে রাজী থাকলেও বাবা রাজী না থাকায় গোপনে কোর্টে বিয়ে হলে তা জানার পর সালাউদ্দিন রাগাম্বিত হয়ে মারধোরের ঘটনা ঘটায়।
নিহতের বড় ভাই আমিরুল ইসলাম জানান, আমার বোনকে বাড়ীতে ফেলে বেধরক মারধোর করে আমাদের খবর দেয় যে, আসমা বিষ পান করেছে। কিন্তু এসে দেখি প্রচন্ড আঘাত করে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখেছে। এ অবস্থায় আমার বোনকে হাসপাতালে নেয়ার পর তার জ্ঞান ফেরেনি। এ ব্যাপারে হত্যা মামলা করবেন বলেও জানান তিনি।
ভালুকা মডেল থানার ওসি (তদন্ত) হযরত আলী জানান, অভিযুক্ত সালাউদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। সম্পাদনা: মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার