প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সম্পত্তি লিখে না দেয়ায় গৃহবধূকে কুপিয়েছে স্বামী ভাসুর ও ননদ জামাই

খেলাফত হোসেন খসরু, পিরোজপুর: পিরোজপুর সদর উপজেলার ঝনঝনিয়া গ্রামে ২সন্তানের জননীকে তার মামার বাড়ীতে বসে উপর্যপরী কুপিয়ে জখম করেছে স্বামী,ভাসুর ও তার ননদ জামাই। রাত সাড়ে ৮ টার দিকে এ ঘটনার পর রক্তাক্ত জখম অবস্থায় গৃহবধূ সোনিয়া বেগম কে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতাল ও এলাকা সূত্রে জানা যায়, নামাজপুর এলাকার বাসিন্দা মোঃ মোজাম্মেল হক শেখের পুত্র সিফাতুল্লাহ মুনসুরের সাথে ঝালকাঠী জেলার কাঠালিয়া উপজেলার দঃআউরা গ্রামের চুন্নু হাওলাদারের মেয়ে সোনিয়া বেগমের ২০০৫ সালে বিয়ে হয়। বিয়ের পর মুনসুর ও সোনিয়ার পরিবারে ছেলেমেয়ে দুটি সন্তান জন্ম লাভ করে। কিন্তু যৌতুকের দাবীতে স্বামী মুনসুর প্রায়ই সোনিয়াকে মারধর ও নির্যাতন করত।

এদিকে গৃহবধূ সোনিয়া সোহেলী অাক্তার সেবু নামে একজনের কাছে শ্বাশুড়ীর বিক্রি করা দেয়া সম্পত্তি নিজের টাকা দিয়ে কিনলে সেই সম্পতি স্বামী তার নামে লিখে দিতে নানা রকম অত্যাচার মারধর করতে থাকে। এক পর্যায়ে সোনিয়া ঝালকাঠী আদালতে যৌতুক নিরোধ আইনে মামলা করেন। ঘটনার দিন মামাত ভাই রাসেল এর বিয়ের অনুষ্ঠানে ছোট মামা মানিক সিকদারের ঘরে বসে কয়েকজন নিয়ে কথাবর্তা বলতে থাকলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে স্বামী মুনসুর,ভাশ্বর আনাসার সেখ,ননদের স্বামী রুস্তুম আলী সেখ হত্যার উদ্দেশ্যে সোনিয়াকে উপর্যপরী কুপিয়ে গুরুত রক্তাক্ত আহত করে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত