প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফুটন্ত তেলে হাত ডোবাতে হলো কর্মীদের, বিজেপি নেতাকে দিতে হলো ‘অগ্নি পরীক্ষা’

অরিজিৎ দাস চৌধুরি, কলকাতা থেকে: নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করতে মালিকের নির্দেশে ফুটন্ত তেলে হাত ডোবাতে হল কর্মীদের। অমানবিক এই ঘটনার সাক্ষী থাকল গুজরাটের সানন্দ শহর। সোশ্যাল মিডিয়ার  ছবিটি ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় শুরু হয়।
শহরের পেট্রোল পাম্প থেকে চুরি গিয়েছিল ৬ লক্ষ রুপি। ঘটনাচক্রে ওই পেট্রোল পাম্পেরই মালিক করমশি প্যাটেল। সূত্রের খবর, চুরি ঘটনার পেট্রোল পাম্পের তিন কর্মীর ওপর প্রাথমিক সন্দেহ গিয়ে পড়ে মালিকের। কারণ, মালিকের দাবি, ওই তিন জনই চুরির রাতে পেট্রোল পাম্পে কর্মরত ছিলেন। এরপর শুরু জেরা। দফায় দফায় জেরার পরও নিজেদের ‘দোষ’ শিকার করতে চাননি ওই তিন কর্মী। এরপরই তাঁদের জন্য ব্যবস্থা করা হয় ‘অগ্নি পরীক্ষা’র। ফুটন্ত তেলের মধ্যে হাত ডুবিয়ে রেখে নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করতে হয় তাঁদের।
গরম তেলে গভীর ক্ষত তৈরি হয়েছে তিন কর্মীরই হাতে। তাঁদের হাত ঝলসে গিয়েছে। কিন্তু নির্বিকার বিজেপি নেতা। বিজেপি নেতা প্যাটেলের বক্তব্য, ” আমার পেট্রোল পাম্পের সিন্দুকে ১২ লক্ষ রুপি রাখা ছিল। কিন্তু সেখান থেকে ছ’লক্ষ টাকা চুরি গিয়েছে। যে রাতে চুরি যায়, সেই রাতে ওই তিন কর্মীই কাজে ছিল। চুরির সময়ে সিসিটিভি ক্যামেরা বন্ধ করে দেওয়া হয়। যখন ক্যামেরা ফের চালু করা হয়, তখন দেখা যায় তিন জনই ঘুমোচ্ছে। তাই সন্দেহ ওদের উপরই যায়।” বিজেপি নেতার আরও যুক্তি, ”আমি কাউকেই এই কাজ করতে বাধ্য করি নি। তিন কর্মী আনুগত্যের খাতিরেই নিজেরাই এই কাজ করেছে।”
ঘটনার দৃশ্য কেউ ভিডিও করে ইন্টারনেটে ছেড়ে দেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে সেই ছবি। উঠেছে বিতর্কের ঝড়।
আনিস/

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ