প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বগুড়ার ধর্ষিতা সেই মা-মেয়ে অভিভাবকের জিম্মায়

বগুড়া প্রতিনিধি: তুফান বাহিনীর হাতে বর্বর নির্যাতনের শিকার কিশোরী ও তার মাকে অভিভাবকের জিম্মায় দেয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত। বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ- ১ ও শিশু আদালতের বিচারক ইমদাদুল হক আজ বুধবার বিকেলে এ আদেশ দেন।

গত ৩০ অক্টোবর ওই কিশোরীর বাবা ইয়াকুব আলী তার মেয়ে ও স্ত্রীকে নিজ জিম্মায় নেয়ার জন্য আবেদন করেন।

 

গত ২৭ জুলাই মেয়েকে ধর্ষণ এবং মা-মেয়েকে মাথা ন্যাড়া করে নির্যাতনের অভিযোগে শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারকে প্রধান আসামি করে মেয়েটির মা মুন্নি বাদী হয়ে বগুড়া সদর থানায় দুটি মামলা দায়ের করেন। এই ঘটনায় তুফান, তুফানের স্ত্রী, স্ত্রীর বড় বোন বগুড়া পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকি ও তুফানের সহযোগীসহ ধর্ষণের অভিযোগে ১০ জনসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে ১০ অক্টোবর বগুড়া সদর থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) আবুল কালাম আজাদ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বগুড়া সদর থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) আবুল কালাম আজাদ জানান, নির্যাতিত কিশোরীর বাবা ইয়াকুব আলী নিজের মেয়েকে রাজশাহী সেফ হোম থেকে নিজের জিম্মায় নেয়ার জন্য আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত তা মঞ্জুর করেন। কিশোরীকে বাবার জিম্মায় এবং কিশোরীর মাকে তার স্বামীর জিম্মায় দেয়ার নির্দেশ দেন আদালত।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৭ জুলাই ওই ছাত্রীকে ভালো কলেজে ভর্তি করার নাম করে ডেকে নিয়ে শ্রমিক লীগের বহিস্কৃত নেতা তুফান সরকার ধর্ষণ করেন। এই ঘটনার বিচার করে দেয়ার নাম করে ২৮ জুলাই তুফানের স্ত্রীসহ পরিবারের লোকজন ও সহযোগীরা অসহায় মা-মেয়েকে মারপিট করে মাথা ন্যাড়া করে দেয়। এ ঘটনায় মামলা দায়ের হলে পুলিশ ধর্ষক তুফান ও নির্যাতনকারী কাউন্সিলর রুমকিসহ ১১ জনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেন। পরবর্তী সময়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ১৩ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। এই মামলা দায়ের হলে আদালতের নির্দেশে ৭ আগস্ট নির্যাতিত কিশোরীকে রাজশাহী সেফ হোমে এবং তার মাকে রাজশাহী ভিকটিম সার্পোট সেন্টারে প্রেরনের নির্দেশ দেয়া হয়।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, বহুল আলোচিত মা-মেয়েকে নির্যাতনের মামলায় চার্জশিট গ্রহণের ওপর শুনানি হবে আগামী ১৩ নভেম্বর। ২৫ অক্টোবর এ জন্য তারিখ নির্ধারিত থাকলেও মামলার নথি না পাওয়ায় বিচারক নতুন দিন ধার্য করেন। সম্পাদনা: মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ