প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুদ্ধ জাহাজ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি
২০৩০ সালের মধ্যে নৌ-বাহিনীকে ত্রি-মাত্রিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হবে

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, ২০৩০ সালের মধ্যে নৌ-বাহিনীকে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। তিনি জাহাজ নির্মাণের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারার আশা প্রকাশ করে বলেন, খুলনা শিপইয়ার্ডের জাহাজ নির্মাণের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারলে বাংলাদেশ আগামীতে জাহাজ রপ্তানি করতে পারবে।

বুধবার খুলনার খালিশপুরস্থ তিতুমীর নেভাল জেটিতে দুটি যুদ্ধ জাহাজ ও দুটি ট্যাগ বোট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

নৌ-বাহিনীর প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের প্রত্যাশা তুলে ধরে রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, শেখ মুজিবর রহমান ১৯১৪ সালে নৌ-বাহিনীর জোয়ানদের উদ্দেশ  বলেছিলেন, তোমাদের কাছে আমার আবেদন তোমরা শৃঙ্খলা রক্ষা করবে। কারণ শৃঙ্খলাহীন জাতি বাঁচতে পারে না। তোমাদের বিশেষভাবে শৃঙ্খলা রক্ষা করে চলা প্রয়োজন। তোমরা আল্লাহর হুকুম মানবে। দেশ ও দেশের মাটিকে ভালোবাসবে। কারণ এ দেশেই আমাদের জন্ম। তোমরা সব সময় সৎপথে থাকবে। এসব তোমাদের প্রতি আমার আদেশ, আমার অনুরোধ।

তিনি বলেন, জাতির পিতা একটি শক্তিশালী নৌ-বাহিনী গঠনের জন্য তার রূপকল্প বাস্তবায়নে ছিলেন বদ্ধপরিকর। সে কারণে শত সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও তিনি বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর তরিৎ উন্নয়নে বেশ কয়েকটি যুদ্ধজাহাজ সংগ্রহের ব্যবস্থা করেন। একইভাবে বর্তমান সরকার নৌ-বাহিনীকে আধুনিকায়ন ও যুগোপযোগি বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়নে যুদ্ধজাহাজ সংগ্রহ এবং বিদ্যমান জাহাজসমূহের অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাস্তবমুখী পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

তিনি দেশের তৈরি আন্তর্জাতিক মানের এ জাহাজ দুটি নৌ-বাহিনীর সক্ষমতা বাড়াবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

আনিস/

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ