প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সব রোহিঙ্গাকে ফেরত নিতে হবে

রাজেকুজ্জামান রতন : শুধুমাত্র ২০১৬ সালের পরে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে চেয়ে মিয়ানমার যে পাল্টা প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশকে, তা একেবারেই অযৌক্তিক এবং অগ্রহণযোগ্য। তাহলে ২০১৬ সালের আগে আসা রোহিঙ্গারা কি মিয়ানমারের মানুষ নয়? তারা কি মিয়ানমার থেকে আসেনি? তারা কোথায় যাবে? মিয়ানমার সরকার কি তাদেরকে বাংলাদেশে রেখে দিতে চায়? মিয়ানমার সরকার চালাকি করে আগেই রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব কেড়ে নিয়েছে। যার ফলে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের নাগরিক বলা যাচ্ছে না। এই কাজটি মিয়ানমার সেনাবাহিনী সুপরিকল্পিতভাবে করেছে। একই প্রস্তাবে তারা আরো বলেছে, ফিরিয়ে নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিজেদের ভিটে-মাাটিতে উঠতে দেওয়া হবে না। তাদেরকে একটা নিদিষ্ট জায়গায় মিয়ানমার সরকার রাখতে চায়। এবিষয়টি মিয়ানমারের অভ্যন্তরিণ বিষয়। রোহিঙ্গাদের ফেরত নিয়ে মিয়ানমার সরকার কোথায় রাখবে তা বাংলাদেশের দেখার বিষয় নয়। এ বিষয়টি দেখার জন্য জাতিসংঘ আছে। আমাদের কাছে মূখ্য বিষয় একটাই, রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে হবে। এখানে ২০১৬ সাল কোনো বিষয় হতে পারে না। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বর্বর নির্যাতনের শিকার হয়ে জীবন বাচাতে মিয়ানমার থেকে যেসকল রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে, সব রোহিঙ্গাকে মিয়ানমার সরকারকে ফেরত নিতে বাধ্য করতে হবে।

পরিচিতি : কলামিষ্ট ও কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য, বাসদ
মতামত গ্রহণ : লিয়ন মীর
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ