প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাসে মেয়েদের পোশাক কাটা এক লোককে ধরে ফেললেন তরুণী (ভিডিও)

আল-আমীন আনাম: ফেসবুকে বেশ কয়েকজন নারীর পোস্ট থেকে জানা যায় যে বাসে কোন বিকৃত রুচির মানুষ মেয়েদের জামা, শাড়ি ব্লেড দিয়ে কেটে দিচ্ছে। কয়েকদিন আগে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত বাসে মেয়েদের জামা ব্লেড দিয়ে কেটে দিচ্ছে কোন বিকৃত রুচির মানুষ? শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

এরই মধ্যে গতকাল সোমবার রাতে মিরপুর এক নম্বর থেকে এমন একজন ব্যক্তিকে হাতেনাতে ধরেছেন এক তরুণী। এরপর লোকটিকে মিরপুর থেকে কলাবাগানে নিয়ে গিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। সোশাল মিডিয়ায় বিস্তারিত জানিয়েছেন তরুণী। একই সাথে পোস্ট করেছেন কিছু ছবি যেখানে দেখা যাচ্ছে লোকটির নিকট থেকে প্রাপ্ত মানিব্যাগে একটি ‘কাটার’ রয়েছে।

তরুণী লিখেছেন, বাস- বিহঙ্গ গ্রিন। এতদিন দেখছি ফেসবুকে পোস্ট, আজ আমার সাথে ঘটল। কিছুদিন একই সময় (রাত সাড়ে ৮টা) মিরপুর থেকে ধানমণ্ডি আসছিলাম এই লোক আমার পাশে বসে। কিছুক্ষণ পর খেয়াল করলাম উনি আমার জামার সাইডটা ধরে টানছে। ৩-৪ বার দেখার পর উনাকে বললাম যে আপনি আমার নানার বয়সী। চিল্লানোর পর উনি বাস থেকে নেমে গিয়েছিল।

তিনি লিখেছেন, আজকে যখন বাসে উঠলাম এবং উনাকে দেখেই চিনে ফেললাম। আমি ঠিক তার আগের সিটে বসলাম। গাড়ি ছাড়ল, এরপর মনে হলো কিছু একটা হচ্ছে। পেছন থেকে কে যেন জামা টানতেছে। সব ঠিক করে বসলাম। কিন্তু ঠিক নাই, উঠে দাঁড়িয়ে পেছনে হাত দিয়ে দেখলাম আমার জামা পুরো কাটা। আমি যেই পেছনে তাকালাম, উনি দৌঁড় দিতে আমি শার্টের কলার ধরে ফেলে চিল্লালাম।

তরুণী হাতেনাতে ধরে ফেলার বর্ণনা দিয়ে লিখেছেন, প্রথমে কেউ তাকে ধরে নাই কারণ উনি বৃদ্ধ একটা লোক কিন্তু পরে যখন সবাইকে দেখালাম সব ঘটনা, এরপর অনেকেই এগিয়ে এলো। এরপর তাকে ধরে মিরপুর থেকে কলাবাগান আনলাম। এর মধ্যে আসাদগেট থেকে আমার স্বামীকে ফোন দেওয়ায় সে বাসে এসে ওঠে। পরে দিয়ে দিলাম পুলিশের কাছে। কিছু বলার নাই ভাষা হারিয়ে ফেলছি আমি।

তরুণী ওই ব্যক্তিকে পুলিশে হস্তান্তরের কথা বললেও কলাবাগান থানা ও শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ বিষয়টি সম্পর্কে কিছুই বলতে পারেনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত