প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌদি আরবের বিরুদ্ধে লেবাননের যুদ্ধ ঘোষণা

সাইদুর রহমান : সৌদি আরবের বিরুদ্ধে লেবানন যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বলে দাবি করেছে রিয়াদ। গতকাল (সোমবার) আল-আরাবিয়্যাহ টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ অভিযোগ করেছেন পারস্য উসাগরীয় অঞ্চল বিষয়ক সৌদি মন্ত্রী সামের সুবহান।

সাক্ষাতে সামের বলেন, হিযবুল্লাহ সৌদি আরবের হুমকিস্বরুপ সকল সন্ত্রাসী কর্মকা- করে যাচ্ছে। সৌদির বিরুদ্ধে যুদ্ধে লেবাননকে শরীক হতে কিছুতেই দিবে না সৌদি আরব। হিযবুল্লাহর কারণে আমরা লেবাননের সরকারকে যুদ্ধ ঘোষণাকারী সরকার হিসেবে বিবেচনা করবো। সামের জোর দিয়ে বলেন, লেবানন সরকারের প্রতিটি সিদ্ধান্তে হিযবুল্লাহ প্রভাব রাখে।

তিনি আরো বলেন, ‘হিযবুশ শয়তান’ (হিযবুল্লাহকে লক্ষ্য করে) কে দমন করতে আমরা সব ধরণের রাজনৈতিক এবং অন্যান্য উপকরণ ব্যবহার করবো।

হারিরির নেতৃত্বাধীন সরকার হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে সুবহান বলেন, ‘সেখানে অনেকে আছে যারা দক্ষিণ লেবাননে ফিরে আসবে।’

সাক্ষাতকারে তিনি আরো বলেন, লেবাননি জনগণকেই শান্তির পথ অথবা হিযবুল্লাহর পথ নির্ধারণ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, ‘লেবানিজদের এই ঝুকি সম্পর্কে মনে রাখা উচিত এবং খুব তাড়াতাড়ি সমাধা করা উচিত। আমরা কামনা করি, লেবানন সরকার হিযবুল্লাহকে দমন করবে।

সামের আরো বলেন, হিযবুল্লাহ সৌদি আরবে মাদক দ্রব্য পাচারে জড়িত এবং সৌদি যুবকদের সন্ত্রাসবাদে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। সা‘দ হারীরি এবং লেবাননের জনগন কিছুতেই হিযবুল্লাহকে মেনে নিবে না। হিযবুল্লাহ লেবাননকে কুক্ষিগত করেছে আর এর নেপথ্যে রয়েছে ইরান। লেবানিজ জনগন হিযবুল্লাহর সহিসংতা বন্ধ করতে সক্ষম।

এর আগে এক টুইটার বার্তায় সুবহান বলেন, “সাদ হারিরির পদত্যাগের পর লেবানন কোনো অবস্থায়ই আগের মতো থাকবে না। আমরা হিজবুল্লাহকে কোনোভাবেই আমাদের দেশের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের প্লাটফর্ম গড়ে তুলতে দেব না। এখন হিজবুল্লাহর নেতাদেরকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে, তারা রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসবাদ চালাবেন নাকি শান্তির পথ বেছে নেবেন।

সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, হিজবুল্লাহর তৎপরতাকে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে লেবাননের পক্ষ থেকে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। লেবানন সরকারকে হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকে সৃষ্ট এই ঝুঁকি অনুধাবন করার আহ্বান জানান। সূত্র : আল-আরাবিয়্যাহ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ