প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ল্যাম্পের ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত

মোস্তাফিজার রহমান বাবলু,রংপুর: টিয়ারফান্ডের আর্থিক সহযোগিতায় ল্যাম্ব হাসপাতালের স্বাস্থ্য কেন্দ্রীক- দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস প্রকল্প বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে মানবিক সাড়া প্রদানে এগিয়ে আসে। জেলা- উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, ইউনিয়ন দুর্যোগ কমিটির সাথে সমন¦য়ের মাধ্যমে কার্যক্রমটি বাস্তবায়িত হচ্ছে।

গত ১৮ আগস্ট থেকে চলমান ত্রাণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ১০০২টি পরিবারে শুকনো খাবার (বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহযোগিতায়), ৬০০ শিশুর (১-৫ বছর) মাঝে সম্পূরক পুস্টি খাবার, ৩২০০০ পিস পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও ৬০০০ পিস্ খাবার স্যালাইন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা সংস্কারে ১১০০ প্লাস্টিক ব্যাগ, কিশোরীদের ব্যাক্তিগত পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার লক্ষে ৩০০০ হাইজিন কিটস্, ২০০০ ছাত্র/ছাত্রীর মাঝে শিক্ষা উপকরণ, ১২০০ পরিবারে বহনযোগ্য সিমেন্টের চুলা, প্রান্তিক এবং ক্ষুদ্র কৃষকদের মাঝে মাসকলাইয়ের ডাল বিতরণ করা হয়।

বামনডাঙ্গা ইউনিয়নে ত্রাণবিতরণ করেন কুড়িগ্রামের জেলাপ্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম¥দ ফেরদৌস খান, তিনি শিক্ষা উপকরণ, বীজ, হাইজিন কিটস্ ও সিমেন্টের চুলা বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব আবুল কাশেম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শংকর কুমার বিশ্বাস, সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামান আসাদ, অধাপক রাশেদুজ্জামান, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন ও ল্যাম্ব ডিআরআর প্রজেক্ট ম্যানেজার মাহাতাব লিটন।

পাশাপাশি নাগেশ্বরী উপজেলার বামনডাঙ্গা, বল্লভেরখাস, কচাকাটা, কালীগঞ্জ, নুনখাওয়া ও নারায়নপুরে বিভিন্ন দুর্গম চরে ১৪টি মেডিকেল ক্যাম্পের মাধ্যমে ৩৩৩৫ জন রোগীকে অভিজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা সেবা প্রদান ও বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হয়। আরও ১৩৫০টি পরিবারে ঘর মেরামত ও খাদ্য ক্রয়ের জন্য অর্থ সাহায্যের পরিকল্পনা রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত