প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যে কারণে বিএনপিকে আওয়ামী লীগের প্রয়োজন

আফসান চৌধুরী  : বিএনপি যদি আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে তাহলে অস্থিত্ব সংকটে পড়বে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে না গিয়ে যে অবস্থা হয়েছে সেটাই তো সামলাতে পারছে না তারা। এবং বিএনপি এমন কোনো দলও নয় যে, তাদের হাটে-মাঠে অসংখ্য লোকজন রয়েছে। আওয়ামী লীগ যে চাপটা সৃষ্টি করেছে তা সামাল দেওয়ার মতো সামর্থ্য তাদের নেই। তবে নির্বাচন করে সংসদে গেলে সে চাপ সামাল দিতে পারবে। নির্বাচনে না গেলে বিএনপির মুসলিম লীগের মতো পরিণতি হবে, সংকুচিত হয়ে পড়বে দল হিসেবে বলে যে মন্তব্য করেছেন ওবায়েদুল কাদের তা তো তিনি কমই বলেছেন। তবে মুসলিম লীগের সঙ্গে তুলনা সঠিক নয়। কারণ মুসলিম লীগের পায়ের নিচে মাটিই ছিল না। এদেশে মুসলিম লীগের তেমন কোনো অস্থিত্বও ছিল না। বিএনপি যদি টিকে থাকতে চায় তাহলে আগমী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতেই হবে। নির্বাচন না করলে দলটি প্রায় নিঃশেষ হয়ে যাবে।
বিএনপি কেবল সমঝোতার কথা বলছে। সমঝোতা করতে হলে তো শক্তি থাকতে হয়। বিএনপির কী সেই শক্তিটা আছে? সমঝোতা করার মতো শক্তি-সামর্থ্য তাদের নেই। ২০১৪ সালেও বিএনপি আন্দোলন করে আওয়ামী লীগকে ফেলার চেষ্টা করেছে। তাতে কি কিছু হয়েছে? হয়নি। বরং বিএনপি শেষ হয়ে গেছে। তবে আওয়ামী লীগের উচিত হবে বিএপিকে নির্বাচনে নিয়ে আসা। এ জন্য যা যা করা দরকার তা করা উচিত। কারণ আওয়ামী লীগেরও প্রয়োজন বিএনপিকে। আওয়ামী লীগ যদি আরও একটা নির্বাচন করে বিএনপিকে ছাড়া, সেটা তাদের জন্যও ভাল দেখাবে না। এতে অশান্তি আরও বাড়বে। এখন আওয়ামী লীগের ভিতরেও অনেক ঝামেলা। তারা যদি তা যদি মেটাতে চায় তাহলেও তাদের একটি বিরোধীদল প্রয়োজন। আওয়ামী লীগের লোকজন নিজেদের মধ্যে যে ঝগড়াঝাটি করছে, তাতে তাদের লোকজন কমে যাবে। আওয়ামী লীগ নিজেদের প্রয়োজনেই বিএনপিকে নির্বাচনে নিয়ে আসা দরকার। বিএনপিকেও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত।
পরিচিতি : গবেষক ও সিনিয়র সাংবাদিক
মতামত গ্রহণ : গাজী খায়রুল আলম
সম্পাদনা : আশিক রহমান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ