প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নীলফামারীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যার বিচারের দাবি সহ-পাঠিদের

নূর আলম সিদ্দিকী, নীলফামারী: কোচিং ব্যবসা বন্ধ কর, জাস্টিস ফর বৃষ্টি ’এ ধরনের উক্তি লিখেছেন ছাত্রীরা প্লাকার্ডে। নীলফামারীতে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএ সি পরীক্ষার্থী সুরভি রায় বৃষ্টির আত্মহত্যার বিচারের দাবিতে সহ-পাঠিদের রাস্তা অবরোধ ও মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করে।

আজ রবিবার বিকালে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের আয়োজনে বৃষ্টি রায়ের আত্মহত্যার বিচার চেয়ে চৌরঙ্গী স্মৃতি অম্লান চত্বরে ঘন্টাব্যাপি রাস্তা অবরোধ ও মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করেন ছাত্রীরা।

এ সময় এসএসসি পরীক্ষার্থীরা বলেন, বৃষ্টি রায় ভূগোলে ২ নম্বর ও ইতিহাসে ৫ নম্বর পেয়েছে। গত শনিবার ওই খাতা ভূগোলের স্যার মোকছেমুল হাকিম চৌধুরী লেলিন এবং ইতিহাসের মাড্যাম গুলনাহার বেগম সহপাঠিদের ক্লাসে সকলের সামনে খাতা দেখিয়ে বলেন তুমি অসাধারন ফলাফল করেছো সকলে জানুক। কিন্তু বৃষ্টি রায় স্যারের কাছে বহু মিনতি করে খাতাগুলো না দেখার জন্য। কিন্তু কোন লাভ হয়নি। স্যাররা সকল ছাত্র-ছাত্রীদের খাতা দেখায় । এ লজ্জায় ক্ষোভে গত শনিবার সন্ধায় গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে সুরভি রায় বৃষ্টি।

ছাত্রীরা আরও অভিযোগ করেন, স্যারদের কাছে প্রাইভেট ও কোচিং করলে পাশ করিয়ে দেয়। পরীক্ষার খাতার সাথে এক থেকে দুই হাজার টাকা খাতার ভিতরে ঢুকে দিতে বলেন, না দিলে ফেল করিয়ে দেয়। বৃষ্টি রায় অন্য বিষয়গুলোতে ভাল করেও কি করে ভূগোল ও ইতিহাসে ফেল করেছে এটা আমাদের সন্দেহ হয়। প্রাইভেট ও কোচিং না করার কারনে তাকে ফেল করিয়ে দেয়া হয়েছে। সকলে এর বিচার দাবি করেন।

বৃষ্টি রায় কুন্দুপুর ইউনিয়নের পূর্ব পাটকামরী গ্রামের ভীম রায়ের মেয়ে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম বলেন, বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।

সজিব খান

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ