প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাহজালালে জুতার ভেতর থেকে মুদ্রা উদ্ধার, গ্রেফতার ২

নুরুল আমিন হাসান : হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আবু বক্কর সিদ্দিক ও আলী আযম নামের দুই যাত্রী জুতার ভেতর থেকে বাংলাদেশি টাকায় ৩৪ লাখ ০৮ হাজার ৮০ টাকা উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দারা। এ ঘটনায় ওই দুই যাত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিমানবন্দরের বহির্গমনকালে বোর্ডিং এলাকা থেকে শনিবার রাতে তাদের বৈদেশিক মুদ্রাসহ গ্রেফতার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক (ডিজি) ড. মঈনুল খান আমাদের সময় ডটকমকে জানান, শাহজালালে দুই বহির্গমন যাত্রীর জুতার মোজার ভেতর থেকে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রাসহ দুুই যাত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, শনিবার রাতে শাহজালালে বিদেশ যাবার প্রাক্কালে দুই যাত্রীর জুতার মোজার ভেতর লুকায়িত অবস্থায় বৈদেশিক মুদ্রা আটক করেছে। তারা ঢাকা-মালয়েশিয়া বিমানে এমএইচ ১১৩ ফ্লাইটে যাচ্ছিলেন।

ডিজি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বহির্গমনকালে বোর্ডিংকার্ড নেয়ার পরপর শুল্ক গোয়েন্দা তাদেরকে চ্যালেন্জ করে গ্রেফতার করে। এরপর শাহজালালের কাস্টমস হলে নিয়ে এসে তল্লাশি করে আবুবকর সিদ্দিকের থেকে থেকে ২৫ হাজার মূল্যমানের ইউরো ও ৫১৭ মূল্যমানের রিঙ্গিত এবং আরেক জনের কাছ থেকে ১০ হাজার মূল্যমানের ইউরো ও ১৪২ মূল্যমানের রিঙ্গিত উদ্ধার করা হয়। যা বাংলাদেশি টাকায় এসব মুদ্রার পরিমাণ ৩৪ লাখ ৮ হাজার ১৮০ টাকা।

ড. মঈনুল খান বলেন, এসব মুদ্রা তাদের জুতার মোজার ভেতর লুকায়িত ছিল। এই মুদ্রা তারা চোরাচালান করার চেষ্টা করছিলেন মর্মে প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়। যা ঘোষণা ছাড়া এবং লুকানোর কারণে বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইন ও শুল্ক আইন ভঙ্গ হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে যাত্রী দুইজন চোরাচালানী পণ্য কিনতে এই মুদ্রা অবৈধভাবে বহন করছিলেন।

পাসপোর্ট চেক করে দেখা যায় আবুবকর সিদ্দিক ২০১৭ ইং থেকে এ পর্যন্ত একজন ১০ বার এবং আলি আযম ০৩ বার বিদেশ গমন করেছেন বলেও তিনি জানান।

এই ব্যাপারে ওই যাত্রী দুইজনকে শুল্ক আইন ও মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ব্যাপারে ওই যাত্রী দুইজনকে শুল্ক আইন ও মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে। একইসাথে অন্যান্য আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও মহাপরিচালক জানান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত