প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কাকরাইল মা-ছেলে হত্যাকান্ড
‘হত্যার সাথে জড়িতদের পর্দায় দেখালে এতে অনেক উদ্ভূদ হতে পারে’

কে এম হোসাইন : মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ড. মো: জোবায়ার মিয়া বলেন,প্রত্রিকা টিভিতে যেকোন হত্যাকান্ডের রক্তাক্ত ছবি বা ভিডিওতে বিস্তারিত বর্ণনা গণমাধ্যমে না করায় ভালো। এগুলো দেখে বিরুপ প্রভাব পড়ে শিশু ও বড়দের মাঝে।

ফারজানা রুপার সঞ্চালনায় একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত অনুষ্ঠান একাত্তর র্জানালে তিনি একথা বলেন। এছাড়া ছিলেন ডিবিসি নিউজের সম্পাদক জায়েদুল আহসান পিন্টু।

ড. মো: জোবায়ার মিয়া বলেন, টিভি চ্যানেল, প্রত্রিকায় কোন হত্যাকান্ডের ঘটনার ছবি দৃশ্য দেখায় বিশষ করে টিভিতে বারবার দেখানো হয়। এতে আমাদের মানুষের মনে বিরুপ প্রতিক্রয়া দেখা দেয়। বিশেষ করে শিশুদের মনে। শিশুরা বিষয়টি দেখা বা শুনার পরে আতঙ্কগ্রস্ত হবে। বয়স্কদের মাঝে হতাশা ও অস্তিরত্বতা বিরাজ করবে। অনেক সময় এমন ঘটনার পূণরাবৃত্তি ঘটায় অনেক উৎসাহিত হয়ে। আবার এই হত্যাকান্ড অনেকে শেখার মাধ্যম বা অ্যাডভেঞ্চার হিসেবে নিয়ে থাকে। এই কারণে কোন হত্যাকান্ডের বিস্তারিত না দেখিয়ে, বর্ণনা করে উপস্থাপন করা। এতে তদন্ত বা সচেতনার স্বার্থে যতটুকু দরকার। ততটুকু দৃশ্য বা ঘটনার বর্ণনা দেওয়া ভালো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত