প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর উপর নতুন নিষেধাজ্ঞা চায় মার্কিন আইন প্রণেতারা

সজিব সরকার : মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর অত্যাচারের কারণে মার্কিন আইন প্রণেতারা মিয়ানমার সেনাবাহিনীর উপর নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব দিয়েছে।

সিনেট আর্মড সার্ভিস কমিটির চেয়ারম্যান জন ম্যাককেইন বলেন, দেশটিতে মুসলিম রোহিঙ্গাদের উপর অত্যাচারের সাথে দেশটির সেনাবাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা জড়িত। রোহিঙ্গা হত্যাযজ্ঞের সাথে সেনাবাহিনীর যেসব কর্মকর্তা জড়িত তাদের চিহ্নিত করার জন্য হোয়াইট হাউসকে অনুসন্ধান করতে হবে। হত্যাযজ্ঞের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের যুক্তরাষ্ট্রে ভিসা থাকলে খুব শীঘ্রই তা বাতিল করা উচিত বলে মনে করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘বানিজ্যের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা জরুরী। বার্মা থেকে যেসব পণ্য আমাদের দেশে আমদানি করা হয় তা অতি শীঘ্রই বর্জন করতে হবে এবং নিশ্চিত করতে হবে যে, আমরা মিয়ানমার সরকারের এ অন্যায়ের বিরুদ্ধে অবস্থান করছি।’ রোহিঙ্গার উপর এ অত্যাচারের ফলে প্রায় ৬ লাখ মানুষ পার্শ্ববর্তী দেশ বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণ করেছে। তাদেরকে দেশ থেকে উচ্ছেদ করার জন্য দেশটির সামরিক সৈন্যদল সরকারকে প্রতিনিয়ত সাহায্য করছে।

ডেমোক্রেটিক দলের ইরিয়ট এঞ্জেল বলেন, ‘আইন প্রণেতারা তাদের পরিস্কার ভাবে বলতে চায় যে, তারা এ অন্যায় মেনে নিবেনা। এ সহিংসতা বন্ধ করতে দেশটির সেনাবাহিনীর উপর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিষেধাজ্ঞা জারি করতে হবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এশিয়া সফর করার সময় দক্ষিণ এশিয়ায় একটি সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন যেখানে মিয়ানমারও উপস্থিত থাকবে। এ সম্মেলন রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভ’মিকা পালন করবে বলে আশা করছে মার্কিন আইন প্রণেতারা। আরব নিউজ

সর্বাধিক পঠিত