প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্ঘটনায় আহতকে হাসপাতালে নিয়ে আসা ব্যক্তিকে আটক বা হয়রানি করা যাবে না

হুমায়ুন কবির খোকন : ‘সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নীতিমালা’ নামে নতুন নীতিমালা প্রণয়ন করছে সরকার। আহত ব্যক্তিকে দ্রুততম সময়ে জরুরি চিকিৎসা সেবার মাধ্যমে সম্ভাব্য স্বাস্থ্যঝুঁকি ও প্রাণহানি হ্রাস করাই এই নীতিমালার উদ্দেশ্য। ‘জরুরি চিকিৎসা সেবা’ বলতে নীতিমালার খসড়ায় উল্লেখ করা হয়েছে, দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা প্রদানে প্রাথমিক চিকিৎসা, পরামর্শ বা সহায়তা। হাসপাতাল বলতে বোঝানো হয়েছে সরকারি বা সরকার অনুমোদিত বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক, নার্সিং হোম, মেডিকেল সেন্টার, মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, ইনস্টিটিউট বা প্রতিষ্ঠান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, এই নীতিমালার ফলে সড়ক দুর্ঘটনায় আহতরা সব হাসপাতালে জরুরি চিকিৎসা পাবে। চিকিসৎকরা তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিতে অবহেলা করবেন না। নীতিমালায় উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে তাৎক্ষণিকভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান, আইনি জটিলতার সম্ভাবনা বিবেচনায় চিকিৎসা দিতে বিলম্ব করা যাবে না, আহত ব্যক্তির আর্থিক সক্ষমতা বিবেচনা না করে তাকে চিকিৎসা দিতে হবে। সক্ষমতাসম্পন্ন হাসপাতাল কোনো অবস্থাতেই রোগীর চিকিৎসা প্রদান ব্যতিরেকে ফেরত বা স্থানান্তর করতে পারবে না। জরুরি চিকিৎসার প্রয়োজন হলে উপযুক্ত অভিভাবক বা আত্মীয়ের অনুপস্থিতিতে কোনো আত্মীয় বা অভিভাবকের সম্মতি ব্যতিরেকে প্রয়োজনীয় শল্য চিকিৎসার (অস্ত্রোপচার/অপারেশন) প্রস্তুতিতে চিকিৎসা দেওয়া যাবে। এ

তে জরুরি শল্য চিকিৎসার ফলে আহত ব্যক্তির জীবননাশের আশঙ্কা থাকলে বা জীবনহানি ঘটলে উক্ত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে কোনোরূপ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না। এ সেবার ক্ষেত্রে কোনো চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী ব্যক্তি অবহেলা বা শৈথিল্য প্রদর্শন করলে তা অসদাচরণ হিসেবে বিবেচিত হবে। এ ক্ষেত্রে কোনো হাসপাতাল অবহেলা বা শৈথিল্য প্রদর্শন করলে নিবন্ধন/লাইসেন্স/অনুমতি প্রদানকারী কর্তৃপক্ষ ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেবে।
নীতিমালায় আরো উল্লেখ রয়েছে, আহত ব্যক্তিকে স্ব-প্রণোদিত হয়ে হাসপাতালে যে নিয়ে আসবে তাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কোনো প্রকার আটক করে রাখতে বা বিলম্ব করাতে বা অন্য কোনো প্রকার হয়রানি করতে পারবে না।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে আনার পর স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের দায়িত্ব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উপর বর্তাবে। আহত ব্যক্তি সড়ক দুর্ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকলে চিকিৎসা দেওয়ার আগে তাকে হয়রানি বা আইনগত ব্যবস্থা নিতে কোনো পুলিশ স্টেশনে পাঠানো বা নেওয়া যাবে না। সম্পাদনা : হাসিবুল ফারুক চৌধুরী