প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মহিলা ক্রিকেটের এক ম্যাচে ১৩৬টি ওয়াইড

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রিকেট এমন একটি খেলা যেখানে ১ রানেই জয়-পরাজয় নির্ধারণ হয়ে যায়। সেখানে অতিরিক্ত রান গুরুত্বপূর্ণ একটি উৎস। সবাই চাই অতিরিক্ত রান আটকাতে। কিন্তু যদি শোনা যায় কোন ম্যাচে বোলাররা ১৩৬টি ওয়াইড দিয়েছেন, সেটা অবাক হওয়ার মতোই ঘটনা। এবার এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল অনুর্ধ্ব-১৯ নারী ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনে। গতকাল বুধবার প্রথম ম্যাচে মনিপুর ও নাগাল্যান্ডের বোলাররা মিলে ঘটিয়েছেন এই কান্ড।
ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে নাগাল্যান্ড ৩৮ ওভারে ২১৫ রান করে। যার ১১২ রানই এসেছে ‘এক্সট্রা’ নামের উৎস থেকে। এর মধ্যে ওয়াইড ৯৪টি! আর দলের মাত্র দুজন ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্কের রান করেছেন। পরে ব্যাট করে ১১৭ রানে হেরেছে মনিপুর। নাগাল্যান্ডের বোলাররা ওয়াইড দেয়ার ব্যাপারে এত উদার ছিলেন না। মাত্র ৪২টি ওয়াইড দিয়েছেন তারা। মোট অতিরিক্ত এসেছে ৪৫ রান। কে জানে আরেকটু উদার হলে ম্যাচটির ফল উল্টোই হত কিনা!
ম্যাচের একজন অফিসিয়াল এই ভয়ঙ্কর বোলিং নিয়ে বলেছেন, ‘সঠিক বোলিংয়ের কথা বাদ দিন, বল উইকেটের অন্যপ্রান্তেই পৌঁছাচ্ছিল না। নারীদের ক্রিকেটে শীর্ষ পর্যায় ও অন্যান্য পর্যায়ের মধ্যে ব্যবধানটি অনেক বেশি।’
এবছরই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এর অনুর্ধ্ব-১৯ নারী ক্রিকেট টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মত অংশগ্রহণ করেছে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ছয়টি রাজ্য- অরুনাচল প্রদেশ, মিজোরাম, মনিপুর, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড ও সিকিম। ভারতের নারী জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মমতা মাবেন বলেছেন, ‘ওদের আরো সময় দিতে হবে। রাতারাতি তো আর সব বদলে যাবে না।’ স্পোর্টিংইন্ডিয়া

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত