প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘জাদু বিদ্যায়’ পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করেছিল শ্রীলঙ্কা!

স্পোর্টস ডেস্ক: খুব বাজে সময় সঙ্গী করে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। ২ ম্যাচের টেস্ট, ৫টি ওয়ানডে ও ৩ ম্যাচে টি-টুয়েন্টির পূর্ণাঙ্গ সিরিজ ছিল পাকিস্তানের সঙ্গে। বাজে সময়কে দূরে ঠেলার ইঙ্গিত দিয়ে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২-০ তে জয় পায় শ্রীলঙ্কা। পাকিস্তানকে করে হোয়াইটওয়াশ। বিস্ময় জাগে তাতে। কিন্তু সেই দলটাই

আবার পাকিস্তানের কাছে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টিতে হয় হোয়াইটওয়াশ।
পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ শেষ করে দেশে ফিরে এমন পারফরম্যান্সের জবাব দিতে হয়েছে টেস্ট অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমালকে। কিন্তু সংবাদ মাধ্যমে চান্দিমালের বলা একটি কথা অবাক করেছে সবাইকে। ‘জাদু বিদ্যা’র প্রভাবে নাকি টেস্ট সিরিজ জিতেছিল শ্রীলঙ্কা!
টেস্ট সিরিজে চান্দিমাল ব্যাট হাতে ছিলেন দারুণ। প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৫৫ রানের একটি ইনিংস খেলেছিলেন। দ্বিতীয় টেস্টেও প্রথম ইনিংসে তার ব্যাট থেকে এসেছিল ফিফটির ইনিংস। দলের জয়ে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিয়েছেন অধিনায়ক। কিন্তু পাকিস্তানে যাওয়ার আগে মেয়নির কাছে যান চান্দিমাল। মেয়নি হলো জাদুবিদ্যা বা ডাইনী বিদ্যা চর্চায় বিশেষজ্ঞজন।
চান্দিমাল সেই কথা স্বীকার করে বলেন, ‘আমি সব সময় যে কারো আশীর্বাদ নিতে তৈরি। সেটা যে কোন পাদ্রি হন বা জাদুকর। আপনার প্রতিভা থাকতে পারে। তবে এদের আশীর্বাদ ছাড়া আপনি এক পাও এগুতে পারবেন না।’ চান্দিমালের এই মন্তব্যের আগেই জানা গিয়েছিল শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রী দয়াসিরি জয়াসেকেরা নাকি ক্রিকেটারদের জাদু বিদ্যার সাহায্য নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন।
শ্রীলঙ্কার অনেক রাজনীতিবীদ, ব্যবসায়ী, ক্রীড়া তারকারা জাদুকর বা জ্যোতিষে বিশ্বাসী। চান্দিমাল দাবি করেছেন সে তার বন্ধুর মায়ের কাছে গিয়েছিলেন। যিনি তাদের জন্য আশীর্বাদ করেছেন। তার সেই বন্ধুর মা-ই নাকি ‘মেয়নি’। চান্দিমালের এমন বক্তব্য অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসির খোরাক যুগিয়েছে খুব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত