শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৪ জুন, ২০২২, ১২:০১ দুপুর
আপডেট : ২৫ জুন, ২০২২, ০৯:৩৮ সকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আড়াল করে নিজেকে নিয়ে আছি: মৌসুমী

মৌসুমী

ইমরুল শাহেদ: মৌসুমী ও জায়েদ খানকে কেন্দ্র করে সানি-মৌসুমীর সংসারে যে ঝড় উঠেছিল সেটা আপাতত থেমে গেছে। কিন্তু তার রেশ এখনো কাটেনি। তবে তিনি ক্যামেরার সামনে তেমন একটা এখন সক্রিয় না হলেও ইনস্টাগ্রামে নিজেকে মাঝেমধ্যেই নানা কথা লিখছেন। ক’দিন আগে ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে মৌসুমী লিখেছেন, ‘লুকিয়ে থাকতে চাইলেই লুকিয়ে থাকা যায়। সামনে যেটা থাকে সেটা শরীর। আমি এখন শামুকের মতো হয়ে গেছি। আড়াল করে নিজেকে নিয়ে আছি, এটাই স্বস্তি।’

মৌসুমী

তিনি আরও লিখেছেন, ‘যখন দিনের আলো দেখার সুযোগ হয়, নিজেকে বেমানান লাগে।’ তবে পুরো কথা যেন বলতে গিয়েও বললেন না! সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের কথাও স্মরণ করেছেন তিনি, ‘সিলেটবাসীর কাছে ছুটে যেতে ইচ্ছে করে। হয়তো সুযোগ হলে যাবো, আপনারা সবাই তাদের জন্য দোয়া করবেন।’

মৌসুমী

প্রশ্ন এখানে নয়। মৌসুমী নিজেকে আড়ালে রেখেছেন। এভাবে আড়ালে অনেক নায়িকাই চলে গেছেন। তারা একটা সময় পর্যন্ত ক্যামেরার সামনে সচল থাকেন। অচল হতে শুরু করলেই সরে যান। কিন্তু মৌসুমীর বিষয়টি এমন নয়। এক নির্বাচনে জায়েদ খানের কারণে মৌসুমী হেরে যাওয়ার পর থেকেই জায়েদ খানের প্রতি চিত্রকর্মীদের একটা বিতৃঞ্চা এসে যায়। জায়েদ খান তখন থেকেই সকলের মধ্যে নিজের গুরুত্ব হারাতে শুরু করেন। সেই মৌসুমী যখন জায়েদ খানের সঙ্গে ছবিতে অভিনয় করেন এবং তারই ধারাবাহিকতায় মিশা সওদাগর-জায়েদ খান প্যানেল থেকে নির্বাচন করেন, তখন থেকেই চিত্রকর্মীদের কাছে মৌসুমী অপ্রিয় হয়ে উঠেন। মৌসুমী নিজের অজান্তেই একক সিদ্ধান্তে জনপ্রিয়তার মূলে আঘাত করেছেন। তারই পরিণতি হয়তো তাকে ভোগ করতে হবে। সর্বশেষ জায়েদ খানকে থাপ্পড় মারার ঘটনায় মৌসুমী অডিও বিবৃতি দিয়েছেন জায়েদ খানের পক্ষে। তাতে তার প্রতি সহাভূতি আরো কমেছে চিত্রকর্মীদের। স্রোতের বিপরীতে অবস্থান নিতে গিয়ে তিনি নিজেকে অনেকটাই দূর্বল করে ফেলেছেন। 

মৌসুমী

অন্যদিকে তিনি প্রায় তিন মাস স্বামী ওমর সানির ও পরিবারের কারো  সঙ্গে কথা বলেননি। সানির দাবি, এই দূরত্বের জন্য দায়ি জায়েদ খান। তিনি মৌসুমীকে বিরক্ত করতেন। এ নিয়ে শিল্পী সমিতিতেও অভিযোগ দেন সানি। এই অভিযোগেই তিনি অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের আয়োজনে জায়েদ খানকে চড়ও মারেন। বিপরীতে সানিকে পিস্তল দেখিয়ে হুমকি দেন জায়েদ। তবে জায়েদ খান এই চড় মারার ঘটনা অস্বীকার করেন। পরে অবশ্য মৌসুমী-সানির পুত্র ফারদিন মুখ খোলেন। তিনি পুরো বিষয়টি খোলাসা করেন এবং বাবা-মা’র মধ্যকার ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটান।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়