শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৩ জুলাই, ২০২২, ০৭:০৪ বিকাল
আপডেট : ০৩ জুলাই, ২০২২, ০৭:৫৩ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জনি ডেপের শরীরে ৩৭ ট্যাটু, কোনটির অর্থ কী

জনি ডেপ

মিনহাজুল আবেদীন: হলিউডের আলোচিত তারকা জনি ডেপ। ১৭ বছর বয়সে নিজের প্রথম ট্যাটু করিয়েছিলেন ডেপ। এরপর থামার কোনো কথা নেই। সারা শরীরে সব মিলিয়ে ৩৭টি ট্যাঁটু করিয়েছেন তিনি। সেগুলো যে মাত্র শখের বশে তা নয়, এগুলো তার জীবনের একেকটি ধাপ নির্দেশ করে বলে জানিয়েছেন। 

সম্প্রতি এই লম্বা তালিকায় নতুন আরেকটি ট্যাটু যুক্ত করেছেন এই তারকা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জনির এই নতুন ট্যাটুর খবর জানা গেছে।

অভিনেতা নিজেই ট্যাটু আঁকানোর প্রক্রিয়ার ভিডিও তার সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টে শেয়ার করেছেন। নতুন ট্যাটুটির জায়গা হয়েছে ডেপের বাম হাতের কব্জিতে। মার্কা 

ওয়াশিংটন পোস্টকে ডেপ বলেছিলেন, ‘আমার কাছে এটা একটা ডায়েরির মতো। সবগুলো ট্যাটুই আমার জীবনের কোনো না কোনো পর্যায়কে তুলে ধরে। আপনি যদি আমার ট্যাটুগুলো শুধুই দেখেন সেটা এক ব্যাপার। কিন্তু আমি যদি সেগুলো ধরে ধরে ব্যাখ্যা করি, তাহলে আপনার মনে হবে আপনি আমার ডায়েরির পাতায় পাতায় ঘুরছেন।’

ডেপ বলেন, ১৭ বছর বয়সে যখন প্রথম ট্যাটু করালাম, তখন ছিলাম হাইস্কুল থেকে ঝরে পড়া এক কিশোর যে কিনা একটা রক অ্যান্ড রোল ব্যান্ড দাঁড় করানোর চেষ্টা করছিলো। ওটাই ছিলো আরম্ভ।

ডেপের শরীরে থাকা ৩৭টি ট্যাটুর মধ্যে কয়েকটি ট্যাটু-বৃত্তান্ত উল্লেখ করা হলো-

চেরোকি ট্রাইব

জনি ডেপের প্রথম ট্যাটু ছিল 'চেরোকি ট্রাইব' যা তার ডান বাহুর উপরে অবস্থিত। জনির প্রমাতামহী ছিলেন একজন চেরোকি, তাই তার আমেরিকান বংশসূত্রের সম্মানে এই ট্যাটু করিয়েছিলেন তিনি।

বেটি স্যু

বাম বাহুতে 'বেটি স্যু' লেখা হার্ট আঁকা একটি ট্যাটু করান জনি ডেপ। বেটি স্যু অভিনেতার মায়ের নাম, যিনি ২০১৬ সালে এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন। কিন্তু মায়ের নামাঙ্কিত ট্যাটু ডেপ ১৯৮৮ সালেই করিয়েছিলেন।

লিলি রোজ

বুকের মধ্যে নিজের প্রথম মেয়ে লিলি-রোজ ডেপ এর নাম ট্যাটু করিয়েছেন এই হলিউড অভিনেতা।

উইনোনা ফরেভার

জনি ডেপের সবচেয়ে আলোচিত ট্যাটু হলো 'উইনোনা ফরেভার' যা প্রাক্তন প্রেমিকা উইনোনা রাইডারকে উৎসর্গ করে আঁকানো। নব্বইয়ের দশকে উইনোনার সাথে প্রেম করেছিলেন ডেপ। যদিও বেশিদিন টিকেনি সেই প্রেম; ১৯৯৩ সালে এই জুটির সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায়।

দ্য ব্রেভ

জনি ডেপের ডান হাতের উপরের দিকে অদ্ভুত এক ট্যাটু লক্ষ্য করা যায়- সেলাই করা বন্ধ মুখের এবং তার উপর প্রশ্নবোধক চিহ্ন দেয়া। ছবিটি আসলে দ্য ব্রেভ সিনেমার লোগোসূচক ছবি। ১৯৯৭ সালে ছবিটির সহ-চিত্রনাট্যকার ছিলেন ডেপ এবং পরিচালনাও করেছিলেন। ছবিতে জনি একজন নেটিভ আমেরিকান 'রাফায়েল' এর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন।

জ্যাক স্প্যারো

পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান সিনেমার বিখ্যাত চরিত্র ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারোর কথা নতুন করে বলার কিছুই নেই। ভক্তদের কাছে এই সিনেমা মানেই যেন জনি ডেপ। নিজের অভিনীত এই বিখ্যাত চরিত্রটিকে আরো স্মরণীয় করে রাখতে ডান হাতে জ্যাক স্প্যারোর ট্যাটু এঁকেছেন ডেপ।

দ্য নাম্বার থ্রি

দ্য ওয়াশিংটন পোস্টকে ডেপ বলেন, আমি তিন সংখ্যাটা পছন্দ করি। তিন সংখ্যা তার কাছে ম্যাজিকের মতো এবং সেজন্যেই বাম বাহুতে এই সংখ্যাটি ট্যাটু করিয়েছেন।

ডেথ ইজ সার্টেইন

বিভিন্ন প্রতিবেদন অনুযায়ী, ডেপের ডান পায়ে একটি খুলি ও ক্রসবোনের ট্যাটু আছে, যেখানে লেখা 'ডেথ ইজ সার্টেইন।' ইত্তেফাক

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়