শিরোনাম

প্রকাশিত : ১২ মে, ২০২২, ০৪:৫৯ দুপুর
আপডেট : ১২ মে, ২০২২, ০৫:০৯ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

উড়ন্ত বিমানের বিকল্প ইঞ্জিন আবিস্কার করলেন নারায়ণগঞ্জের রায়হান

রায়হান

মোশতাক আহমেদ: [২] নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার গোগনগর ইউনিয়নের বাসিন্দা কবির হোসাইনের ছেলে কাজী জহির রায়হান। ছোটবেলা থেকেই বিভিন্ন কারিগরি কাজ নিয়ে তার ব্যাপক আগ্রহ ছিলো। কারিগরি বিভিন্ন বিষয়ে গবেষনা করে আসছেন নিয়মিত। সম্প্রতি তিনি উড়ন্ত বিমানের বিকল হয়ে যাওয়া বিকল্প ইঞ্জিনের থিওরি আবিস্কার করেছেন। তার দাবি, আর্থিক সামর্থ্য হলে তিনি সেই থিওরির বাস্তবায়ন করতে পারবেন। 

[৩] কাজি জহির রায়হান বলেন, ১৫ বছর গবেষণা করে আমি আমার সাধারণ জ্ঞানের মাধ্যমে এই বিকল্প ইঞ্জিন আবিস্কার করি। আকাশপথে বিমান বিকল হয়ে পড়লে পাইলট এই বিকল্প ইঞ্জিন ব্যবহার করে ভিতরে থাকা সকল যাত্রী ও প্লেন ক্রু সদস্যদের নিয়ে নিকটে থাকা এয়ারপোর্ট বা বিশেষ নিরাপদ স্থানে অবতরণ করতে পারবেন।

[৪] তার দাবি ৫২ জন টেকনিশিয়ান নিয়ে তার দুই মাস (৬০ দিন) সময় লাগবে এই ইঞ্জিন তৈরি করতে। বিমানের এই বিকল্প ইঞ্জিনটি সম্পূর্ণ রূপে তৈরি করতে (১১১+১৫+১৫) সর্বমোট ১৪১ টি বিশেষ যন্ত্রাংশের প্রয়োজন হবে। 

[৫] আর এই যন্ত্রগুলো ক্রয় করা যাবে বাংলাদেশ, ভারত ও চিনের মার্কেট থেকে। ২৮০ থেকে ৩০০ আসনের বিমানের বিকল্প ইঞ্জিন তৈরীর জন্য ১৪১ প্রকার বিশেষ যন্ত্রাংশ ক্রয়ে সর্বমোট খরচ হবে প্রায় ৩২ লাখ টাকা। সরকার যদি এই ইঞ্জিন তৈরির উদ্যোগ নেয় তাহলে তিনি সেই থিওরি দিয়ে দিবেন। 

[৬] তিনি আরো বলেন, সরকার যদি দায়িত্ব দেন ৫২ জন লোকবল নিয়ে দুই মাসের মধ্যে তৈরি করে দেখিয়ে দিতে পারবো। বিমানের সম্পূর্ণ বডির ৭ টি পয়েন্টে ইঞ্জিন বসানোর জন্য রাত-দিন ভাগ করে কাজ করবো এবং ৬১ তম দিন সকাল ১০ টায় সময় বিকল্প ইঞ্জিন তৈরি করে সম্পূর্ণ কাজ বুঝিয়ে দিতে পারবো। এতে কোটি কোটি টাকা রাজস্ব আয় সম্ভব হবে। সরকার ছাড়াও যদি কেউ বেসরকারি উদ্যোগ নেয় তাতেও আমি রাজি আছি। 

[৭] এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর ইউএনও মো. রিফাত ফেরদৌস বলেন, সাংবাদিকদের মাধ্যমেই বিষয়টি জানতে পেরেছি। বিমানের বিষয়টি সেনসিটিভ। এ বিষয়ে কেউ আমাদের সাথে যোগাযোগ করেননি। সম্পাদনা : জেরিন

  • সর্বশেষ