শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৬ জুলাই, ২০২২, ০৫:০৬ বিকাল
আপডেট : ০৬ জুলাই, ২০২২, ০৫:০৬ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আরব কন্যা ওনস জাবির উইম্বলডনে নতুন ইতিহাস

ঝুমুরী বিশ্বাস: চেক প্রজাতন্ত্রের মারিয়ে বুজকোভার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে প্রথম সেট হারের পর কি খানিকটা দুশ্চিন্তায় পড়েছিলেন ওনস জাবির। সম্ভবত না, দুশ্চিন্তায় ডুবলে কি আর ঘুরে দাঁড়িয়ে ইতিহাস গড়তে পারতেন।

ইতিহাস? হ্যাঁ, উইম্বলডনে মঙ্গলবার অনন্য এক ইতিহাসই গড়েছেন তিউনিসিয়ার এই তৃতীয় বাছাই টেনিস তারকা। বুজকোভাকে ৩৬, ৬১, ৬১ গেমে হারিয়ে উঠেছেন উইম্বলডনের সেমিফাইনালে। 

ছেলে ও মেয়ে মিলিয়ে ওপেন যুগে আরব দুনিয়া থেকে কোনো গ্র্যান্ড স্লামের সেমিফাইনালে ওঠা প্রথম খেলোয়াড় ওনস জাবির। ১৯৯৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার কোয়েৎজারের পর আফ্রিকার প্রথম নারী হিসেবে কোনো গ্র্যান্ড স্লামের সেমিফাইনালে ওঠার নজিরও গড়লেন জাবির। প্রথম আলো

মেয়েদের র‌্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় জাবির ফ্রেঞ্চ ওপেনে প্রথম রাউন্ডে হারের পর ঘাসের কোর্টে টানা ১০ ম্যাচ জিতে উইম্বলডনের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিলেন। সেমিফাইনালে তার প্রতিদ্বন্দ্বী জার্মানির তাতানা মারিয়া। র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০৩ তম এই খেলোয়াড় জাবিরের কাছের বন্ধুও। উইম্বলডনে দুজন একসঙ্গে সময় কাটানো ছাড়াও ফুরসত পেলে মারিয়ার দুই সন্তানের দেখাশোনাও করেন জাবির। তাতানার মুখোমুখি হওয়া প্রসঙ্গে জাবির বলেছেন, আমি তাতানাকে খুব ভালোবাসি। তার পরিবারেকে ভালোবাসি। সে আমার বারবিকিউ বানানোর সঙ্গী। সম্পাদনা: এল আর বাদল

  • সর্বশেষ