শিরোনাম

প্রকাশিত : ৩০ জুন, ২০২২, ১২:০০ দুপুর
আপডেট : ৩০ জুন, ২০২২, ১২:৪২ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

‘বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটে হাহাকার চলছে’

পাপন

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজের সময় বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটের সংস্কৃতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। সর্বশেষ সেন্ট লুসিয়া টেস্ট চলাকালীনও টেস্ট সংস্কৃতির হাহাকারের কথা জানিয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ। ম্যাচ শেষে সেটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ সাকিব আল হাসান।

দর্শকদের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক আবারও মনে করিয়ে দিয়েছেন টেস্ট সংস্কৃতির কথা। সাকিবের মন্তব্যকে ব্যক্তিগত বললেও সেটিকে পাশ কাটিয়ে যাননি নাজমুল হাসান পাপন। সাকিবের সঙ্গে একাত্মা প্রকাশ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি বলেছেন, বাংলাদেশের টেস্ট সংস্কৃতির হাহাকারের কথা।

পাপন বলেন, প্রথম কথা হচ্ছে, সাকিব যেটা বলেছে সেটা সাকিবের ব্যাপার। তবে আমাকে যদি বলেন, একেবারেই দ্বিমত করি না আমি। দুই দশক পেরিয়ে যাওয়ার পরও টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ যেন নবীনতম সদস্য। বছরের পর বছরে পেরিয়ে যায়, ক্রিকেটাররা আশার বাণী শোনান, বিসিবি কর্তাদের কথারও ফুলঝুড়ির দেখাও যায়, তবে দেখা মেলে না সাদা পোশাকে বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নতির। নানা সময়ে সাফল্য এসেছে, তবে সেটা কাজে লাগিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে পরিণত হয়ে উঠতে পারেনি বাংলাদেশ।

বরং পরের সিরিজেই নিজেদের পুরোনো ছন্দে ফিরে হতাশায় ডুবে যায় টাইগাররা। কখনও ব্যাটিং ব্যর্থতা আবার কখনও বোলারদের ব্যর্থতা ডুবিয়েছে বাংলাদেশকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে তেমনভাবে প্রতিযোগিতাই গড়ে তুলতে পারেনি সাকিবের দল।

সর্বশেষ সাউথ আফ্রিকা সফরেও ছিল একই চিত্র। এমন অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে ক্রিকেটারদের পাশাপাশি সমর্থকরা মিলে সংস্কৃতির পরিবর্তন আনার কথা বলছেন সাকিব। এদিকে বোর্ড সভাপতি বলছেন ধৈর্য্য ধরতে। পাপন বলেন, টেস্ট ম্যাচ একটা ধৈর্য্যরে খেলা, এই ধৈর্য্যটা শুধু খেলোয়াড়দের না কিন্তু এটা সকলের। ক্রিকইনফো,সম্পাদনা : এল আর বাদল 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়