শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৭ মে, ২০২২, ১২:২১ দুপুর
আপডেট : ০৪ জুন, ২০২২, ১১:০৭ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

রাজশাহীতে আমের বাজার চড়া

রাজশাহীতে আমের বাজার

ডেস্ক রিপোর্ট: রাজশাহীতে জেলা প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া দিন থেকেই আম গাছ থেকে নামানো শুরু হয়েছে। এ বছর মৌসুমের শুরু থেকে গতবারের তুলনায় এবার আমের দাম দ্বিগুণেরও বেশি। শুধু তাই নয়, এই মূলবৃদ্ধি অন্যান্য বছরকেও ছাড়িয়ে গেছে। 

আমচাষি ও ব্যবসায়ীদের মতে, সব জিনিসের দাম বাড়লেও শুধু আমের দামই ছিল কম। তবে এবার ফলন কম হওয়ায় শুরু থেকেই এই ফলের বাজার চড়া। কৃষি বিভাগ বলছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির জন্যই দাম বেড়ে গেছে। ফলন খুব একটা কম হবে না।

আমচাষী ও ব্যবসায়ীরা আরও জানা যায়, গত বছর আমের ফলন বাম্পার হয়েছিল। তখন সাড়ে ১৮ হাজার হেক্টর জমিতে ২ লাখ ১৭ হাজার টন উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হলেও তা ছাড়িয়ে গিয়েছিল। এ কারণে চাষিরা আমের দাম পাননি। দাম না থাকায় গুটি আম, লক্ষ্মণভোগ, ফজলিসহ বেশ কিছু আম গাছেই পেকে নষ্ট হয়েছে। নামানোর খরচ উঠবে না বলে অনেক আম নামানো হয়নি। আড়তে পাঠানোর পরও অবিক্রীত থাকায় ফেলে দিতে হয়েছিল। শুধু ভালো জাতের আম হিসেবে স্বীকৃত গোপালভোগ, ক্ষীরশাপাতি ও ল্যাংড়ার দাম কিছুটা পেয়েছিলেন চাষিরা।

তবে এবারের চিত্র পুরোপুরি ভিন্ন। টক-মিষ্টি স্বাদের গুটি আমও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। গত বছরের অবিক্রীত গুটি আম এবার ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা মণ বিক্রি হচ্ছে। আর গত বছর গোপালভোগের বাজার শুরু হয়েছিল ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা মণ। এবার গোপালভোগের বাজার শুরু হয়েছে প্রতিমণ ২ হাজার থেকে ২ হাজার ২০০ টাকা। এতে আমচাষি ও ব্যবসায়ীরা খুশি। 

তবে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোজাদার হোসেন বলেন, আমের ফলন খুব একটা কম হয়নি। সূত্র: সমকাল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়