শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৬ মে, ২০২২, ১০:১৮ দুপুর
আপডেট : ২৬ মে, ২০২২, ১১:০৯ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সবুজ বনায়নে তাক লাগিয়েছেন বাকঁখালী রেঞ্জ

হাবিবুর রহমান, নাইক্ষ্যংছড়ি: [২] কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের অধিনে রামুর বাকঁখালী রেন্জ সবুজ বনায়ন করে পুরো দেশবাসীকে তাক লাগিয়ে দিলেন। এ উপলক্ষে সুফল প্রকল্পের চারা রোপনের উদ্বোধন করা হয়েছে। 

[৩] বুধবার (২৫ মে) দুপুরে কক্সবাজারের রামু উপজেলার  বাকঁখালী রেঞ্জ এর গর্জনিয়া ইউনিয়নের ক্যাজর বিল এলাকা থেকে এই প্রকল্পের চারা রোপন শুরু হয়। সুফল প্রকল্পের চারা রোপন উদ্বোধনী অনুষ্টানে বাকঁখালী রেন্জকর্তা মোহাম্মদ সরোওয়া জাহানের সভাপতিত্বে, উদ্বোধক হিসেবে চারা রোপন করেন, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন সরকার ও কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ সরওয়ার আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক ড, প্রান্তোষ চন্দ্র রায়।

[৪] বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বাঘখালী রেঞ্জের প্রায় ৮শ’ হেক্টর বনভূমিতে সুফল প্রকল্পের বনায়ন করছে সরকার। ঘিলাতলী বিটের ২৬৫ হেক্টর পাহাড় ও বনভুমি সুফলের আওতায় আনা হয়েছে। বর্তমানে যেখানে বনায়ন করা হচ্ছে সেখানে বিরল প্রজাতির গাছ ছিল। কিন্তু কিছু বনদস্যূ সেই গাছ কেটে ফেলেছে। সেই জায়গাকে আবারো বনায়নের আওতায় আনা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে বর্তমান সরকারের সবুজ বনায়নের কাজে সকলে এগিয়ে আসবে।  বাঘখালী রেঞ্জের অধিনে গর্জনিয়া এলাকায় ২০২১-২০২২ সালের সুফল প্রকল্পের প্রকল্পের বিভিন্ন জায়গায় প্রায় ১৫ লক্ষ চারা রোপন  করা হবে। 

[৫] সরকারি বনজ সম্পদ ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন এবং বন সংরক্ষণ ও পুননুদ্ধারে স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহণ বাড়ানোর লক্ষ্য নিয়ে ‘সুফল’ প্রকল্পটি শুরু হয় ২০১৮ সালের জুলাইতে। বনের ওপর নির্ভরশীলতা কমানো, বনজ সম্পদ উজাড় রোধ ও বননির্ভর জনগোষ্ঠীর বিকল্প জীবিকার সংস্থান এ প্রকল্পের লক্ষ্য।

[৬] বাঘখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ সরওয়ার জাহান জানান, বাঘখালী রেঞ্জে সুফলের আওতায়  আজকে চারা রোপন উদ্বোধন হলো। আশা করছি এই বনায়নে দেশ সমৃদ্ধ হবে। পাশাপাশি এলাকার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় প্রকৃতিকে সাজিয়ে এলাকার উন্নয়ন আরো তরান্নিত হবে।

[৭] চারা রোপনকালে কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আনোযার হোসেন সরকার জানান,  অনেক বছর ধরে বনবিভাগের জায়গা পরিত্যক্ত ছিল। সুফল বনায়নের আওতায় সকল পরিত্যক্ত জায়গাকে সবুজ বনে রুপ দেওয়ার প্রচেষ্ঠা করে যাচ্ছি।  আশা করছি এই কাজে সকলকে সাথে পাবো। 

[৮] কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ সরওয়ার আলম জানান, বর্তমান সরকার প্রকৃতিকে সাথে রেখে উন্নয়নে বিশ্বাসী তারাই ধারাবাহিকতায় আজকের চারা রোপন কার্যক্রম শুরু হলো। উত্তর বনবিভাগের বাঘখালী রেঞ্জে সুফল বনায়ন এলাকা পরিদর্শন করে ভাল লাগলো। সুন্দরভাবে চারা রোপন করা হচ্ছে । আশা করছি এই চারা একদিন এলাকাবাসীকে সুন্দর বনায়ন উপহার দিবে।

[৯] এসময় উপস্থিত ছিলেন,  বাঘখালী বিট কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম,  ঘিলাতলী বিট কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন, ফরেষ্ট গার্ড, ভিলেজার প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়