শিরোনাম
◈ ঈদযাত্রায় বেনাপোলে মানুষের ঢল ◈ বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে আলোকসজ্জায় নিষেধাজ্ঞা ◈ ৫ দিনে রেমিটেন্স এলো ৫ হাজার কোটি টাকা ◈ জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর ইঙ্গিত দিলেন বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রী ◈ বঙ্গবন্ধু কূটনৈতিক উৎকর্ষ পদক পেলেন লায়লা হোসেন ও ইতো নাওকি ◈ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আরো সক্রিয় হতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ◈ লজ্জা থাকলে বিএনপি লোডশেডিং নিয়ে বলতো না: ওবায়দুল কাদের ◈ কুষ্টিয়া নিখোঁজের ৫ দিন পর  আমাদের নতুন সময়ের সাংবাদিক রুবেলের মরদেহ উদ্ধার, পরিবারের দাবি হত্যা ◈ দলীয় প্রধানের পদ থেকে বরিস জনসনের পদত্যাগ, প্রধানমন্ত্রীত্বও ছাড়বেন ◈ ২৭টি গরু নিয়ে ডুবল ট্রলার, ৬ গরুর মৃত্যু

প্রকাশিত : ১৩ মে, ২০২২, ০৮:৩০ রাত
আপডেট : ১৩ মে, ২০২২, ০৮:৩০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সামান্য বৃষ্টিতেই কুমেক হাসপাতালে জলাবদ্ধতা

কুমিল্লা প্রতিনিধি: [২] সামান্য বৃষ্টি হলেই নগরীর কুচাইতলীতে অবস্থিত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। কুমিল্লা জেলার ১৭ টি উপজেলা থেকে  ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগীরা চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন তাছাড়া চিকিৎসা সেবার মান ভাল হওয়ার কারনে আসে-পাশের অন্যান্য জেলা থেকেও রোগীরা এখানে চিকিৎসা নিতে আসেন। 

[৩] ভাড়ী বৃষ্টি হলে বৃষ্টির পানি সরতে ১ দিন লেগে যায় যার কারণে এডিস মশার লাভার সম্ভাবনা থেকে যায়। কিন্তু সামান্য বৃষ্টিপাত হলেই হাসপাতালে পানি জমে জলাবদ্ধতা হওয়ার কারণে এখানে রোগীদের বহনকারী এ্যাম্বুলেন্সসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। জলাবদ্ধতার  দরুন এ্যাম্বুলেন্স থেকে রোগীদের ট্রলিতে করে নিতে হাসপাতালে নিতে কষ্ট হয়।

[৪] হাসপাতালে যাতায়াতের জন্য একমাত্র রাস্তা হওয়ার দরুন এখান দিয়ে রোগী ও রোগীর সাথে আগত আত্মীয়-স্বজনদের পানি ঠেলে হাসপাতালে যেতে হয়। বৃষ্টির পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় অল্প বৃষ্টি হলে এখানে পানি জমে থাকে এবং পানি নামতে এক দিন লেগে যায়। জলাবদ্ধতার কারণে এখানে পানিবাহিত রোগ ডেঙ্গু ও ডায়রিযাসহ নানা ধরনের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা আছে । 

[৫] সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গতকালের সকালের বৃষ্টির পানি দিনের তিনটা পর্যন্ত সরেনি। রোগীদের  আত্মীয়-স্বজনদের সাথে কথাবলে জানা যায়, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অল্প বৃষ্টি হলে এখানে পানি জমে থাকে ত্র্যাম্বুলেন্স বা ব্যাটারী চালিত অটো ও সিএনজিসহ অন্যান্য যানবাহন থেকে পানির মধ্যদিয়ে রোগীকে ট্রলিতে তুলতে কষ্ট হয় যার কারণে চিকিৎসাসেবা নিতে আসা রোগীদের ভোগান্তি আরো বেড়ে যায়। 

[৬] কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মহিউদ্দীন বলেন, বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না থাকায় এখানে আসা রোগীদের ও তাদের আত্মীয় স্বজনদের অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হয়, শুধু তাই নয় পানি ভেঙ্গে ডাক্তাদের আসতেও বেগ পেতে হয়। পানি নিষ্কাশনের জন্য বড় ধরনের মাস্টার প্লেন না করলে হাসপাতালে রোগীদের আসা-যাওয়ার প্রধান সড়কটি এবং কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনের সামনেও বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। হাসপাতাল থেকে সড়কটি উচুঁ হওয়ার কারণে এখানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয় বলে তিনি জানান। 

  • সর্বশেষ