শিরোনাম
◈ প্রাইভেটকারের ওপর গার্ডার: ক্রেনের চালক ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা ◈ গার্ডার চাপায় নিহতদের ময়নাতদন্ত হবে সোহরাওয়ার্দীর মর্গে ◈ উত্তরায় দুর্ঘটনা: শিশু জাকারিয়া জীবিত ছিল আধাঘণ্টা ◈ পুলিশের উদ্দেশ্যই ছিল ছাত্রলীগের ছেলেদের মারবে: এমপি শম্ভু ◈ রাজধানীতে ক্রেন থেকে রড পড়ে ৫ পথচারী আহত ◈ চকবাজার ও উত্তরার ঘটনায় শোক জানিয়ে তদন্তের দাবি ফখরুলের ◈ মানবাধিকারকর্মীদের কথা শুনলেন জাতিসংঘের মিশেল ব্যাচেলেট ◈ উত্তরায় ক্রেন দুর্ঘটনা: বেঁচে রইলেন শুধু নবদম্পতি ◈ খায়রুনকে লাথি মেরে সেই রাতে বাইরে যান স্বামী ◈ উত্তরায় প্রাইভেট কারের উপর ফ্লাইওভারের গার্ডার, নিহত ৫ (ভিডিও)

প্রকাশিত : ০৬ আগস্ট, ২০২২, ০১:০২ রাত
আপডেট : ০৬ আগস্ট, ২০২২, ০২:৩২ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

দাম বৃদ্ধির ঘোষণার পরে বন্ধ পাম্প, বাইকারদের রাস্তা অবরোধ 

ছবি: সংগৃহীত

ডেস্ক রিপোর্ট: সারা দেশে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি ঘোষণা করা হয় আজ শুক্রবার রাতে। সরকারের এই ঘোষণা কার্যকর হওয়ার কথা ছিল শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে। কিন্তু ঘোষণার পরপরই রাত ১০টার দিকে তেল বিক্রয় বন্ধ করে দেয় রাজশাহীর পাম্পগুলো। পাম্পগুলোর এমন আচরণের প্রতিবাদে তৎক্ষণাৎ ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করেন সাধারণ মোটরসাইকেল চালকেরা। আজকের পত্রিকা

সরকারি ঘোষণার পরপরই রাজশাহী মহানগরীতে মোটরসাইকেল চালকেরা বিভিন্ন ফিলিং স্টেশন ঘুরে তেল না পেয়ে ভোগান্তির শিকার হতে থাকেন। পরে নগরীর তালাইমারিতে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট সংলগ্ন নয়ান পেট্রোলিয়াম এজেন্সি ফিলিং স্টেশনের সামনে সড়ক অবরোধ করেন তাঁরা। 

এ সময় সড়কের দুপাশে যানজট শুরু হয়ে যায়। প্রায় দেড় ঘণ্টা অবরোধ চলার পর ঘটনাস্থলে হাজির হয় পুলিশ। রাত ১১টা ২০ মিনিটের দিকে পুলিশের হস্তক্ষেপে তেল বিক্রিতে বাধ্য হয় পাম্প কর্তৃপক্ষ। 

রাজশাহী মহানগরীর মতিহার থানার ওসি আনোয়ার আলী তুহিন বলেন, ‘রাজশাহীর কোথাও কোনো পাম্পে তেল দেওয়া হচ্ছে না বলে খবর পেয়েছি। আমি এসে দ্রুত সময়ের মধ্যে এখানে তেল বিক্রির ব্যবস্থা করেছি। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। বাইকাররা তেল পাচ্ছেন।’ 

এদিকে, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে হঠাৎ করে তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণায় কুষ্টিয়ার বিভিন্ন ফিলিং স্টেশনে ছুটোছুটি  করতে দেখা যায় মোটরবাইক চালকদের। শহরজুড়ে এক ধরনের তোলপাড় শুরু হয়। পাম্পে পাম্পে পড়ে যায় দীর্ঘ লাইন, শত শত মোটরসাইকেল লাইন ধরে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। কুষ্টিয়ার মজমপুর এর কয়েকটি তেল পাম্পে তেল দিলেও, দাম বাড়ার খবর শোনার পর শহরের বাইরের অধিকাংশ তেলপাম্প বন্ধ করে সটকে পড়ে কর্তৃপক্ষ। জ্বালানি তেলের সরকার নির্ধারিত নতুন মূল্য রাত বারোটার পর কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও দাম বাড়ার খবর প্রকাশের পরপরই তেল পাম্প কর্তৃপক্ষ তেল দিতে গড়িমসি শুরু করে। এই কারণে তেল নিতে আসা ক্রেতারা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। 

এ ছাড়া, দিনাজপুরের চিরিরবন্দরেও প্রায় সব কটি’টি ফিলিং স্টেশন শুক্রবার রাত ১০টার পর থেকে তেল দেওয়া বন্ধ করে দেয়। এরই জের ধরে জ্বালানি তেল কিনতে এসে তেল না পাওয়ায় বিক্ষুব্ধ জনতা রাণীরবন্দর রশিদ অ্যান্ড ব্রাদার্স ফিলিং স্টেশনের সামনে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় মহাসড়কে প্রায় ৪৫ মিনিট যান চলাচল বন্ধ থাকে। এ সময় দুদিকে শতাধিক গাড়ি আটকা পড়ে। পরে পাম্প মালিক পক্ষ তেল দেওয়ায় রাজি হলে অবরোধ তুলে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। 

  • সর্বশেষ