শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ আগস্ট, ২০২২, ০৫:৩১ বিকাল
আপডেট : ০৫ আগস্ট, ২০২২, ০৫:৩১ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

শেরপুরে শহীদ শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি 

শেরপুরে শহীদ শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি 

তপু সরকার হারুন : শেরপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকীতে শেরপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও শেরপুর জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের শ্রদ্ধাঞ্জলি।

 বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বীরমুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল । 

৫ আগষ্ঠ শুক্রবার  সকাল ১০ শেরপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতিকৃতি  পাশে শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি  জানান শেরপুর জেলা ক্রিড়া সংস্থার সভাপতি ও শেরপুর জেলা  প্রশাসক সাহেলা আক্তার  ও জেলার সু যোগ্য জেলা পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরী,জেলা  মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সালে মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হিরু , অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুক্তাদিরুল আহাম্মেদ, শেরপুর জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতিজেলা ক্রিড়া সংস্থার যুগ্মসাধারন সম্পাদক ও বিশিষ্ঠ  ক্রিয়াবীদ সাংবাদিক মানিকদও  শেরপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও শেরপুর জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের নেতা ওকর্মীরা ।

 এসময় উপস্থিত বিভিন্ন কর্ম্ কর্তারা বলেন বীরমুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল বহুমাত্রিক অনন্য সৃষ্টিশীল প্রতিভার অধিকারী তারুণ্যের দীপ্ত প্রতীক শহীদ শেখ কামাল ।

 তিনি উপমহাদেশের অন্যতম সেরা ক্রীড়া সংগঠন, বাংলাদেশে আধুনিক ফুটবলের প্রবর্তক আবাহনী ক্রীড়াচক্রের প্রতিষ্ঠাতাই ছিলেন না, তিনি ছিলেন ঢাকা থিয়েটারের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা। অভিনেতা হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যাঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত ছিলেন।শৈশব থেকে ফুটবল, ক্রিকেট, হকি, বাস্কেটবলসহ বিভিন্ন খেলাধূলায় প্রচন্ড উৎসাহ ছিল তার। শেখ কামাল স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ওয়ার কোর্সে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হয়ে মুক্তিবাহিনীতে কমিশনন্ড লাভ ও মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি জেনারেল ওসমানির এডিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

স্বাধীনতার পর শেখ কামাল সেনাবাহিনী থেকে অব্যাহতি নিয়ে লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করেন। তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন এবং শাহাদাত বরণের সময় বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগের অঙ্গ-সংগঠন জাতীয় ছাত্র লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শাহাদাতবরণের সময় তিনি সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের এমএ শেষ পর্বের পরীক্ষা দিয়েছিলেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়