শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৩ জুন, ২০২২, ০৬:০৫ বিকাল
আপডেট : ২৪ জুন, ২০২২, ১১:০৮ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

অর্থনৈতিক সংকট থেকে বাঁচাতে

পাকিস্তানকে ২৩০ কোটি ডলার দিচ্ছে চীন

চীন ও পাকিস্তানের পতাকা

মামুন হোসেন: পাকিস্তানের বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভের অবস্থা খুবই খারাপ, সেই সাথে পাকিস্তানের মুদ্রার মূল্যও ভয়ংকরভাবে কমে গেছে। এই সংকট থেকে ইসলামাবাদকে উদ্ধার করতে চীনের একাধিক ব্যাংকের কনসর্টিয়াম ২৩০ কোটি ডলার দিচ্ছে। গত ১০ জুনে সরকার জানিয়েছিলো, পাকিস্তানের স্টেট ব্যাংকের কাছে নয়শ কোটি ডলার আছে, তা দিয়ে মাত্র ছয় সপ্তাহের আমদানির খরচ মেটানো সম্ভব। তাই পাকিস্তানের কাছে চীনের থেকে পাওয়া এই অর্থ খুবই প্রয়োজন ছিল। দ্য ডন, জিও টিভি

পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল চীনকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেছেন, আর দিন দুই-তিনের মধ্যেই অর্থ হাতে পাওয়া যাবে। টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় মিফতাহ ইসমাইল বলেছেন, চীনা ব্যাংকের কনসোর্টিয়াম আজকে ১৫০০ কোটি আরএমবি (চীনা মুদ্রা) ঋণ সুবিধা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এই অর্থ হাতে পেলে দেশের বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভে কিছু অর্থ জমা পড়বে এবং মুদ্রার অবমূল্যায়নও ঠেকানো যাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টোও চীনকে ধন্যবাদ দিয়েছেন। টুইটাওে তিনি বলেন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং এবং চীনের মানুষের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। চীন পাকিস্তানের সব সময়ের বন্ধু।

এদিকে আইএমএফের সঙ্গেও পাকিস্তানের আলোচনা চলছে। তারা যাতে আগের মতো এক্সটেন্ডেড ফান্ড ফ্যাসিলিটি দেয় তা নিয়ে আলোচনা অনেকদূর এগিয়েছে। গত রাতে আইএমএফ ও পাকিস্তান ২০২২-২৩-এর বাজেট নিয়ে একটা সমঝোতায় পৌঁছেছে। সম্পাদনা: ইমরুল শাহেদ 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়