শিরোনাম
◈ ‘করোনা বাড়লেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পরিকল্পনা নেই’ ◈ গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি-সম্পাদক গ্রেপ্তার ◈ বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত সকাল ৭টায়, হবে ৫টি ◈ ২ হাজার ৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির ঘোষণা  ◈ ‘সারাদেশে যে লোডশেডিং চলছে তা খুব বেশি দিন থাকবে না’ ◈ ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠন করায় বিদেশিরা বিনিয়োগে আগ্রহী হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী ◈ পচেত্তিনোর বিদায়, পিএসজির নতুন কোচ গালতিয়ে ◈ ঈদে ফিলিস্তিনদের জন্য মসজিদুল আকসা খুলে দিচ্ছে ইসরায়েল ◈ ইয়েমেনের অস্ত্রাগারে বোমা হামলায় নিহত ৬ ◈ প্রভাবশালী ২ ব্রিটিশ মন্ত্রীর পদত্যাগ, সঙ্কটে বরিস সরকার

প্রকাশিত : ১৯ মে, ২০২২, ০৬:১২ বিকাল
আপডেট : ১৯ মে, ২০২২, ১১:৪৩ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

স্বাধীনতার ৭৫ বছরের ইতিহাসে  

পাকিস্তানি মুদ্রার ভয়াবহ ও রেকর্ড দরপতন 

পাকিস্তানি মুদ্রা

মিনহাজুল আবেদীন: [২] ডলারের বিপরীতে ঐতিহাসিক পতন ঘটেছে পাকিস্তানি রুপির। বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের মুদ্রাবাজারে ১ ডলারের বিপরীতে পাওয়া যাচ্ছে ২০০ রুপি। এনডিটিভি

[৩] পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে ডলারের বিপরীতে রুপির মান ‍ছিল ১৯৮ দশমিক ৩৯; কিন্তু মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এই মান ২০০ ছাড়িয়ে যায়। জিও

[৪] ১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর গত ৭৫ বছরের ইতিহাসে নিজেদের মুদ্রার এই পরিমাণ পতন দেখেনি পাকিস্তান। ঢাকা পোস্ট

[৫] চলমান অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় ৬০০ কোটি ডলারের তহবিলের জন্য যখন পাকিস্তানের সরকার আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছে তদবির করছে, সে সময়েই ঘটল মুদ্রার এই দরপতন।

[৬] রুপির এই দরপতনের কিছুক্ষণের মধ্যেই শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেন পাকিস্তানের প্রধামন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। বৈঠকে তিনি দেশের বর্তমান পণ্য আমদানি-রপ্তানির হালনাগাদ পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চান। পাশাপাশি, বিলাসজাত ও অতি জরুরি নয়-এমন পণ্য আমদানির বিষয়ে সরকার যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলো, সেটির বাস্তবায়ন সম্পর্কিত প্রতিবেদনও তিনি তলব করেন।

[৭] এদিকে, পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল আইএমএফের মিশন প্রধানের সঙ্গে ভার্চুয়াল মাধ্যমে বৈঠক করেছেন বৃহস্পতিবার। বৈঠকে তিনি জানান, দেশের অর্থনীতিকে বাঁচাতে আইএমএফের পরামর্শ অনুযায়ী ‘কঠোর নীতি’ গ্রহণে প্রস্তুত পাকিস্তানের সরকার।

[৮] গত ২০১৮ সাল থেকেই অর্থনৈতিক সংকট চলছে পাকিস্তানে। করোনা মহামারিতে তা হয়েছে আরো তীব্র। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকে মাত্র দেড় মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর মতো ডলার মজুত আছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়