শিরোনাম

প্রকাশিত : ১৪ মে, ২০২২, ০৬:০৩ বিকাল
আপডেট : ১৪ মে, ২০২২, ০৬:৩৫ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা বৈশ্বিক খাদ্য সংকটকে আরো খারাপ করেছে 

লিহান লিমা: [২] শুক্রবার জাতিসংঘের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা খাদ্য রপ্তানি সীমাবদ্ধ করা নিয়ে দেশগুলিকে সতর্ক করে বলেছেন, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া চলমান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকটের ভুল প্রতিক্রিয়া হলো রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা। আনাদুলু এজেন্সি

[৩] মহামারীর কারণে দরিদ্র দেশগুলিকে গত দুই বছর ধরে ক্রমবর্ধমান খাদ্যমূল্যের সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে। গম এবং অন্যান্য খাদ্যদ্রব্যের দুটি প্রধান উৎপাদক এবং রপ্তানিকারক রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধের কারণে খাদ্য ঘাটতিজনিত পরিস্থিতি আরো খারাপ হয়েছে।

[৪] জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) প্রধান কু ডংইউ বলেন, এই পরিস্থিতিতে সরকারগুলির উচিত রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা থেকে বিরত থাকা। কারণ এটি খাদ্যের মূল্যবৃদ্ধিকে বাড়িয়ে তুলতে পারে এবং বিশ্ব বাজারে আস্থা নষ্ট করতে পারে।

[৫] জার্মানির স্টুটগার্টে জি-৭ দেশগুলোর কৃষিমন্ত্রীদের বৈঠকে কিউ বলেন, এফএও এর তত্ত্বাবধানে খাদ্য মূল্য প্ল্যাটফর্মের সম্প্রারণের মাধ্যমে বৈশ্বিক খাদ্য বাজারে বৃহত্তর স্বচ্ছতা এবং দরিদ্র দেশগুলিকে তাদের ক্রমবর্ধমান খাদ্য ব্যয় মেটাতে সহায়তা করার জন্য সস্তা ঋণ এই সংকট দূর করতে পারে।

[৬] যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আন্তর্জাতিক খাদ্য নীতি গবেষণা ইনস্টিটিউট আর্জেন্টিনা, ইন্দোনেশিয়া, কিরগিস্তান, তুর্কিস্তান এবং কাজাখস্তানকে ‘উল্লেখযোগ্য’ দেশগুলির মধ্যে তালিকাভুক্ত করেছে। এই দেশগুলো ইউক্রেন যুদ্ধে খাদ্যদ্রব্যের রপ্তানি বিধিনিষেধে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সাড়া দিয়েছে। 

[৭] এদিকে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক রাশিয়াকে ইউক্রেনীয় বন্দর থেকে শস্য রপ্তানি বন্ধ করার জন্য অভিযুক্ত করেছেন। এবং এই পদক্ষেপটিকে ‘হাইব্রিড যুদ্ধের’ অংশ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

[৮] এফএও বলেছে যে মিশর, তুর্কি, কঙ্গো, ইরিত্রিয়া, মাদাগাস্কার, নামিবিয়া, সোমালিয়া এবং তানজানিয়া গম আমদানিতে সবচেয়ে বেশি নির্ভরশীল। অন্যদিকে আর্জেন্টিনা, বাংলাদেশ এবং ব্রাজিল রাশিয়া থেকে আমদানি করা সারের উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল।

  • সর্বশেষ