শিরোনাম

প্রকাশিত : ১৪ মে, ২০২২, ০৩:৪০ দুপুর
আপডেট : ১৪ মে, ২০২২, ০৩:৪০ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

২১ মৃত্যুর প্রেক্ষিতে বললেন কিম জং উন 

উত্তর কোরিয়ায় চরম অশান্তি ডেকে এনেছে মহামারী

লিহান লিমা: [২] শনিবার উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন বলেছেন, করোনার প্রার্দুভাব গোটা দেশকে চরম অশান্তির মধ্যে ফেলেছে। এ সময় ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কাটিয়ে উঠতে ‘সর্বোচ্চ জরুরি মহামারী প্রতিরোধ ব্যবস্থা’প্রয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এনডিটিভি

[৩] উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ বলেছে, দেশটির  ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টি কোভিড ইস্যুতে জরুরি বৈঠক করেছে। ওই বৈঠকে জানানো হয় এপ্রিলের শেষ দিকে অজ্ঞাত ধরনের জ্বর শুরু হওয়ার পর থেকে প্রায় দুই লাখ ৮০ হাজার ৮১০ জনের চিকিৎসা করা হয়েছে এবং জ্বরে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে জ্বরাক্রান্ত ব্যক্তিরা করোনায় মারা গেছেন কি না তা জানায়নি গণমাধ্যমটি। এই বৈঠকে কিমকে প্রথমবারের মতো মাস্ক পরিহিত অবস্থায় দেখা গিয়েছে।

[৪] ওই বৈঠকে মহামারি নিয়ন্ত্রণবিষয়ক কর্মকর্তাদের পেশ করা প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, চিকিৎসা পদ্ধতির বিষয়ে পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাবে অতিরিক্ত মাত্রায় ওষুধ প্রয়োগ ও অবহেলার কারণে রোগীদের মৃত্যু হয়েছে।’

[৫] গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো করোনা প্রাদুর্ভাবের কথা জানায় দেশটি। এর পরই পুরো দেশে লকডাউন জারি করা হয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দুর্বল স্বাস্থ্যসেবা এবং করোনা টিকা কর্মসূচি না থাকার কারণে দেশটির আড়াই কোটি মানুষ ঝুঁকিতে আছে।

[৬] গত দুই বছর ধরে বিশ্বব্যাপী মহামারির প্রাদুর্ভাব ছড়ালেও উত্তর কোরিয়ায় কোনো রোগীর সংবাদ পাওয়া যায়নি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ কোরিয়াকে অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও চীনের তৈরি ডোজ দিতে চাইলেও তারা তা প্রত্যাখ্যান করে। দেশটির কর্তৃপক্ষ দাবি করে, ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে সীমান্ত বন্ধ রেখে তারা করোনা সংক্রমণ রুখে দিয়েছে।

  • সর্বশেষ