শিরোনাম
◈ লঞ্চের ভাড়া পুনর্নির্ধারণে বৈঠক আজ ◈ জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির দুইদিনের কর্মসূচি ◈ সদরঘাটে দুই লঞ্চের চাপায় পড়ে ট্রলারযাত্রী নিহত ◈ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ ◈ রাজধানীর শাহবাগে আন্দোলনকারীদের ওপর পুলিশের হামলা, আহত ২০ (ভিডিও) ◈ রাজধানীতে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় জামায়াতের ৬ কর্মী গ্রেপ্তার ◈ হজে গিয়ে ভিক্ষা: অবশেষে জামিন পেলেন মতিয়ার ◈ মাঝিপাড়া হিন্দুপল্লীতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ৫১ আসামি কারাগারে ◈ পরিবারের ৪ জনই ভুয়া চিকিৎসক, করেন জটিল রোগের চিকিৎসা ◈ চলন্ত বাসে ডাকাতি-ধর্ষণ, মূল পরিকল্পনাকারীসহ গ্রেপ্তার ১০

প্রকাশিত : ০১ জুলাই, ২০২২, ০৫:৫৭ বিকাল
আপডেট : ০১ জুলাই, ২০২২, ০৭:০৭ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মিশর, জর্ডান, আমিরাতে নারী হত্যার বিরুদ্ধে আরব নারীদের ধর্মঘটের আহ্বান

রাশিদুল ইসলাম : অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক বিবৃতিতে বলেছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতকে অবিলম্বে তিন নারীকে মুক্তি দিতে হবে যারা একজন রাজনৈতিক বন্দীর মুক্তির জন্য প্রচারণা চালিয়েছিল। তারা এখন পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। আরব নারীরা সম্প্রতি বেশ কয়েকটি মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের পরে নারীহত্যা এবং নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার প্রতিবাদে আগামী ৬ জুলাই একটি ‘সাধারণ ধর্মঘট’ পালনের জন্যে অনলাইনে সংগঠিত হচ্ছে।

ফেসবুকে তারা এ লক্ষ্যে আহবান জানিয়ে বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার মাত্রা অস্বাভাবিক, তাই আমাদের পদক্ষেপ অবশ্যই অসাধারণ হতে হবে, এবং আমাদের ক্ষতি, তা যাই হোক না কেন, নারীদের জীবনের ক্ষতির চেয়ে বেশি হবে না। ইতিমধ্যে তাদের এ আহবানে ১৯,১০০ জনেরও বেশি মানুষ আগ্রহ দেখিয়েছে এবং ৩,২০০ জনেরও বেশি বলেছে যে তারা ওই ইভেন্টে যোগ দিতে রাজি। 

একটি বিবৃতিতে, উইমেনস স্ট্রাইক গ্রুপ বিশেষ করে ‘নারীবাদী, আইনী, নাগরিক এবং রাজনৈতিক দলগুলির নারীদেরকে সতর্ক, সংহতিতে দাঁড়াতে এবং সীমানা অতিক্রম করে এমন একটি নারী ধর্মঘটের জন্য প্রস্তুত হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছে। 

তারা আহবান জানিয়ে আরো বলেছেন ওই দিন আমাদের কাজ এবং কাজগুলি (যদি সম্ভব হয়) করা থেকে বিরত থাকি), নারীদের ধর্মঘট যাতে আমরা কেন্দ্রীয়ভাবে আমাদের সংহতি প্রকাশ করি।

সম্প্রতি আরব বিশ্বে মিশরে নায়েরা আশরাফ, জর্ডানে ইমান রশিদ এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে লুবনা মনসুর সহ বেশ কয়েকজন নারীকে মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের পর এর বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। নিহত নারীদের সকলেই তরুণী ছিল। তাদের কিশোর বয়সে বা ২০ বছরের নীচে। ক্রোধের কারণে পুরুষরা তাদের হত্যা করে। 

জাতিংঘের তথ্য অনুসারে, বিশ্বব্যাপী এক-তৃতীয়াংশ নারী লিঙ্গ-ভিত্তিক সহিংসতার সম্মুখীন হবে, যার মধ্যে ৩৭ শতাংশ আরব নারী রয়েছে, যদিও ১০ জনের মধ্যে ছয়জন ভিকটিম কোনো ধরনের সমর্থন বা সুরক্ষা চাওয়া থেকে বিরত থাকেন।

ব্রিটেনের হুদা জাওয়াদ বলেন, এটি যা স্পষ্ট করে তা হল যে আগের চেয়ে বেশি, নারীরা যে সহিংসতার সম্মুখীন হয় তা একটি নির্দিষ্ট সংস্কৃতি, বা একটি বিশ্বাস বা একটি শ্রেণির উপর ভিত্তি করে নয়, এটি কেবলমাত্র নারীদের বিরুদ্ধেই ঘটছে। 

আন্তর্জাতিক মুসলিম নারীবাদী গোষ্ঠীর সহ-পরিচালক মুসাওয়াহ বুধবার মিডল ইস্ট আইকে জানিয়েছেন, প্রকৃতপক্ষে, দক্ষিণ আফ্রিকা, ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র এবং ফ্রান্স সহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে নারীরা নারীহত্যা এবং নারীর প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে বিক্ষোভের জন্য রাস্তায় নেমে এসেছে। গত কয়েক মাসে, আর্জেন্টিনার বুয়েনস আইরেস, সিউদাদ জুয়ারেজ এবং মেক্সিকো সিটি, মেক্সিকো এবং ইস্তাম্বুল, তুরস্কে বিশাল বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

জাওয়াদ ব্যাখ্যা করে বলেন, সত্যিই এটি বোঝার প্রয়োজন যে নারী ও মেয়েদের বিরুদ্ধে সহিংসতা পদ্ধতিগত। এটি স্পেকট্রাম থেকে শুরু হয় এক ধরনের রসিকতা, আরও কিছু বিষয় যেমন হয়রানি, চাকরির বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আইন, শিক্ষা, বিবাহের পছন্দ নিয়ে। আমরা যখন একটি আইনি প্রেক্ষাপটে বাস করি যেখানে বলা হয় যে অপরাধীদের দায়মুক্তি সহ এবং আইনের আশীর্বাদে নারীদের প্রতি সহিংসতা এবং ক্ষতি করার অনুমতি দেওয়া হয়, তখন আমাদের এই ঘটনাগুলিতে অবাক হওয়ার কিছু নেই।

জাওয়াদ নবী মোহাম্মদকে (সা:) তার অবস্থানের নজির হিসাবে উল্লেখ করে বলেন, তার প্রথম ঐশ্বরিক বার্তা, আল্লাহর কাছ থেকে একটি কাজ, যা ছিল কন্যাশিশু হত্যা বন্ধ করা। তিনি বলেন, এমন কিছু উদাহরণ রয়েছে যেখানে ইসলামি প্রথা এবং প্রথাগত আইন অনুসারে নারীদের জন্য সমতা বিধান করা সম্ভব। যেমন মরক্কো, তিউনিসিয়া এমনকি সৌদি আরবে সাম্প্রতিক পদক্ষেপগুলি উল্লেখযোগ্য। ‘আল্লাহ বলেন, ‘আমি তোমাদেরকে এক আত্মা থেকে সৃষ্টি করেছি এবং আমি তোমাদের সমান করেছি।’ যদি আমরা ঈশ্বরের জন্য যথেষ্ট ভাল, তাহলে আমরা মানুষের জন্য যথেষ্ট ভাল।

  • সর্বশেষ