শিরোনাম

প্রকাশিত : ৩০ জুন, ২০২২, ০৬:২২ বিকাল
আপডেট : ০১ জুলাই, ২০২২, ০১:২২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

স্নেক আইল্যান্ড থেকে রাশিয়ার সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা

ইমরুল শাহেদ: রাশিয়ার এই সিদ্ধান্ত থেকে স্পষ্টতই বুঝা যাচ্ছে, ইউক্রেনের বন্দর থেকে পুনরায় খাদ্য রপ্তানি শুরু করাকে আর কোনো বাধা দেওয়া হবে না। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, কৃঞ্চসাগরের স্নেক আইল্যান্ড থেকে রুশ সেনা প্রত্যাহার করা হয়েছে। ইউক্রেনের কর্মকর্তারা রাশিয়ার এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে ইউক্রেনীয় বাহিনীর বিজয় হিসেবে ঘোষণা করেছে। আল জাজিরা

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির কার্যালয়ের প্রধান আন্দ্রি ইয়ারমাক টুইট করে বলেছেন, ‘স্নেক আইল্যান্ডে এখন আর কোনো রুশ সেনা নেই। আমাদের সেনারা একটি বড় ধরনের কাজ করেছে।’

ইউক্রেন সামরিক বাহিনীর প্রধান কমান্ডার কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দরটি মুক্ত থাকার প্রশংসা করেছেন। ভ্যালেরি জালুঝনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টেলিগ্রাম পোস্টে লিখেছেন, ‘আমি ওডেসা অঞ্চলের প্রতিরক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকাদের ধন্যবাদ জানাই, যারা আমাদের ভূখণ্ডের একটি কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ অংশ মুক্ত করার জন্য সর্বাধিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।’ 

তিনি লিখেছেন, ‘আমাদের কামান, ক্ষেপণাস্ত্র এবং বিমান হামলার আগুন সহ্য করতে না পেরে দখলদাররা  স্নেক আইল্যান্ড ছেড়ে চলে গেছে।’ 

আলআরাবিয়া নিউজ জানিয়েছে, স্নেক আইল্যান্ডে থাকা রুশ গ্যারিসনের উপর ইউক্রেন বাহিনী বেশ কয়েকবার ক্ষেপনাস্ত্র ও বিমান হামলা চালিয়েছে। তারপরই রাশিয়া এই ঘোষণা দিয়েছে। 

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, সেনা প্রত্যাহারের লক্ষ্য হলো ইউক্রেন থেকে খাদ্যশস্য রপ্তানির জন্য জাতিসংঘের প্রচেষ্টার প্রতি ‘শুভেচ্ছা প্রদর্শন’।   

  • সর্বশেষ