শিরোনাম

প্রকাশিত : ৩০ জুন, ২০২২, ০৩:৫১ রাত
আপডেট : ৩০ জুন, ২০২২, ০৩:৫১ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

কানাডায় ৩০ হাজার বছর আগের ম্যামথ শাবক আবিষ্কার

কানাডায় ৩০ হাজার বছর আগের ম্যামথ শাবক আবিষ্কার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কানাডায় একটি ম্যামথ শাবকের ৩০ হাজার বছরের পুরোনো মমি আবিষ্কৃত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ জুন) দেশটির ইউকন অঞ্চলের ইউরেকা ক্রিক এলাকার একটি স্বর্ণখনিতে এর সন্ধান পান খনি শ্রমিকরা। এলাকাটি ত্রোনদেক ওয়েচিন আদিবাসী গোষ্ঠীর মালিকানাধীন।

সিবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, ডাউসন শহরের দক্ষিণে ইউরেকা ক্রিক এলাকার ক্লোনদিকে স্বর্ণখনিতে খনন করার সময় মামথ শাবকের গায়ে খননযন্ত্রের ধাক্কা লাগে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে ফোন করেন এক খনিশ্রমিক। এরপর মাটির নিচ থেকে বের করে আনা হয় মমিটি।

উত্তর আমেরিকা অঞ্চলে এ ধরনের আবিষ্কারের ঘটনা এটাই প্রথম। এর আগে ওই অঞ্চলে মমি অবস্থায় ম্যামথ শাবকের দেহের অংশবিশেষ পাওয়া গিয়েছিল। ম্যামথ হলো হাতির মতো দেখতে অতিকায় লোমশ এক বিলুপ্ত প্রাণীবিশেষ। বরফযুগে এর অস্তিত্ব ছিল। নতুন সন্ধান পাওয়া ম্যামথ শাবকের মমিটি ৩০ হাজার বছরের পুরোনো বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইয়ুকোনের স্থানীয় সরকার ম্যামথ শাবকের এ মমিকে ২০০৭ সালে সাইবেরিয়ায় ভূগর্ভস্থ চিরহিমায়িত অঞ্চলে পাওয়া ম্যামথ শাবকের সঙ্গে তুলনা করেছেন। তারা বলছেন, এটি উত্তর আমেরিকায় এখন পর্যন্ত সন্ধান পাওয়া একমাত্র পূর্ণাঙ্গ মমি। আর বিশ্বে এ ধরনের দ্বিতীয় ঘটনা।

ধারণা করা হচ্ছে, ম্যামথ শাবকটি মেয়ে। আদিবাসী হান ভাষায় এর নাম দেওয়া হয়েছে নুন চো গা। এর অর্থ ‘বড় পশু শাবক’। ইউকনের জীবাশ্ম বিশেষজ্ঞ গ্রান্ট জাজুলা বলেন, ‘নুন চো গা দেখতে সুন্দর। বিশ্বে এখন পর্যন্ত বরফযুগের আশ্চর্যজনক যত মমিকৃত প্রাণীর সন্ধান পাওয়া গেছে, এটি তার অন্যতম।’

ইউকনের স্থানীয় সরকারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, এটি ২০০৭ সালে পাওয়া সাইবেরীয় শাবক লিউবার আকারের সমান। লিউবা ছিল প্রায় ৪২ হাজার বছরের পুরোনো।

ক্যালগারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড্যান শুগার  বর্ণনা  করেছেন  যে ম্যামথটিকে কতটা নিখুঁতভাবে সংরক্ষণ করা হয়েছিল। তিনি বলেছেন, প্রাণীটির পায়ের নখ এখনও অক্ষত আছে।

এর আগে ১৯৪৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কা রাজ্যে একটি সোনার খনিতে লোমশ ম্যামথ শাবকের সন্ধান পাওয়া যায়। তবে তার পুরো দেহ পাওয়া যায়নি। আংশিক অবস্থায় পাওয়া যায়।

  • সর্বশেষ