Skip to main content

‘হেফাজতে আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফির বক্তব্য একান্ত ব্যক্তিগত’

Article Highlights

মেয়েদের স্কুল-কলেজে না দিয়ে ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়ানোর হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফির আহ্বানকে একান্ত ব্যক্তিগত অভিমত বলে মনে করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। শনিবার সকালে চট্টগ্রাম নগরীর চশমাহিলের নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় প্রশ্নের জবাবে উপমন্ত্রী এই কথা বলেন।

মেয়েদের স্কুল-কলেজে না দিয়ে ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়ানোর হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফির আহ্বানকে একান্ত ব্যক্তিগত অভিমত বলে মনে করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। শনিবার সকালে চট্টগ্রাম নগরীর চশমাহিলের নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় প্রশ্নের জবাবে উপমন্ত্রী এই কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই বক্তব্য উনার একান্ত এবং ব্যক্তিগত। কারণ বাংলাদেশের শিক্ষানীতি প্রণয়ন, শিক্ষা ব্যবস্থাপনা বা পরিচালনা এছাড়া শিক্ষা খাতে কোনো নির্বাহী দায়িত্বে তিনি নেই। যেহেতু তিনি কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণের অবস্থানে নেই, তিনি অভিমত দিলেই সেটা রাষ্ট্রীয় নীতিতে অন্তর্ভুক্ত বা প্রতিফলিত হবে, এমন চিন্তা করবার অবকাশ নেই। সমাজে বিভিন্ন সময় অনেক এই ধরনের অভিমত দেন। তবে এই বক্তব্য রাষ্ট্রীয় নীতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। দেশের সবল স্তরের নাগরিকেরই বাকস্বাধীনতা আছে। তার মনের ভাবনা প্রকাশ করার অধিকারও আছে। তবে আমি সম্মানের সঙ্গে বলব, আমরা সকলেই যারা বাকস্বাধীনতার চর্চা করছি, আমরা যেন এই বিষয়টা মাথায় রাখি যে- সংবিধান অনুসারে আমাদের সকলের সমান অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার আল জামিআতুল আহলিয়া দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে ১১৮তম বার্ষিক মাহফিল ও দস্তারবন্দী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফি মেয়েদের স্কুল-কলেজে না দিতে, আর দিলেও সর্বোচ্চ ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়ানোর জন্য আহবান করা একটি বক্তব্য ও ভিডিও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়।

অন্যান্য সংবাদ