Skip to main content

৫ বছরে সবচেয়ে কম ভারতীয় কর্মী নিয়োগ গাল্ফ দেশগুলোতে

গাল্ফ দেশগুলিতে বহু ভারতীয়ই কাজ করতে যান। কিন্তু সম্প্রতি প্রকাশিত তথ্যে দেখা যাচ্ছে ২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে ভারতীয়রা ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পেয়েছেন ২১ শতাংশ কম। গাল্ফ দেশগুলোতে ২০১৮ সালের ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ইমিগ্রেশন ছাড়পত্র পেয়েছেন মাত্র ২ লাখ ৯৫ হাজার ভারতীয়। অথচ গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভারতীয় গাল্ফ-এ কাজ করতে গিয়েছিলেন ২০১৪ সালে। ওই বছর ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পেয়েছিলেন ৭ লাখ ৭৬ হাজার ভারতীয়। সেই তুলনায় ২০১৮ সালে প্রায় ৬২ শতাংশের পতন হয়েছে। ইসিআর পাসপোর্ট নিয়ে যাঁরা গাল্ফ দেশগুলিতে যান তাদের ই-মাইগ্রেট ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স তথ্যে মিলেছে এ চিত্র। 

২০১৮ সালে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভারতীয় কর্মী গিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ১ লাখ ৩ হাজার ভারতীয় কর্মী সে বছর আমিরাতে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স পেয়েছেন। এর পরেই নাম রয়েছে সৌদি আরব (৬৫ হাজার) এবং কুয়েত (৫২ হাজার)। অন্যান্য দেশের তুলনায় একমাত্র কাতারে ২০১৮ সালে বেড়েছে ভারতীয় কর্মীদের সংখ্যা। ২০১৭ সালে যেখানে ২৫ হাজার ভারতীয়কে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স দেওয়া হয়েছিল, সেখানে ২০১৮ সালে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৩২,৫০০ কর্মী। 

গত ডিসেম্বর মাসে ভারতের লোকসভায় দেওয়া বিদেশ মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি অনুযায়ী হঠাৎ করে কর্মী সংখ্যা গাল্ফ দেশগুলিতে কমে যাওয়ার পিছনে বেশ কিছু কারণ রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম কারণ তেলের দাম অস্বাভাবিক কমে যাওয়ায় সে দেশে দেখা দেওয়া অর্থনৈতিক মন্দা। এছাড়া দেশের নাগরিকদের সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থায় বেশি সংখ্যক চাকরি দেওয়ার প্রবণতা এই পরিবর্তনের জন্যে দায়ী। টাইমস অব ইন্ডিয়া
 

অন্যান্য সংবাদ