Skip to main content

শ্রমিক আন্দোলনের পেছনে সরকারও রাজনীতি খুজছে : সিদ্দিকুর রহমান

মঈন মোশাররফ : গার্মেন্টস মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর প্রেসিডেন্ট সিদ্দিকুর রহমান মজুরি কাঠামোতে লুকোচুরির অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, আওয়ামী লীগের টানা তৃতীয়বার সরকার যখন শপথ নিয়েছে সেই সময়টাতেই এই বিক্ষোভগুলো হচ্ছে। বিবিসি বাংলাকে তিনি বলেন ঢাকায় তিন হাজার কারখানা চলে। সেখানে কয়টা কারখানাযয় সমস্যা হচ্ছে? সমস্যা হচ্ছে দুএকটা কারখানায়। তারা বের হয়ে অন্য কারখানায় গিয়ে তারা আঘাত করছে বা লোক নামানোর চেষ্টা করছে, এই আচারণ সন্দেহজনক। সরকারও  এই বিষয়টির অবগত থেকে সজাগ দৃষ্টি রাখছে। শুক্রবার বিবিসি বাংলায় তিনি আরো বলেন, শ্রমিক আন্দোলনের পেছনে সরকারও রাজনীতি খুজছে।

তিনি বলেন, আন্দেলনের পেছনে রাজনৈতিক কোন কিছু থাকতে পারে। কোন ইন্ধন-দাতা থাকতে পারে। আমাদের গত ছয় মাসে গ্রোথ অনেক ভালো। এটা কারও কারও ভালো নাও লাগতে পারে। সেটা সরকারকে খুঁজে বের করতে হবে। বিষয়টি তুলে ধরে আন্দোলনের পেছনে সরকারও রাজনীতি খুঁজছে।

তিনি  জানান, আমরা বাড়ি ভাড়ার ভাতা বাড়িয়ে ছিলাম। এখন তারা বলছে, তাদের মূল মজুরি কমে গেছে । পৃথিবীতে সব জায়গায় বেতন যখন বাড়াতে থাকে, তখন উপরের গ্রেডগুলোতে কমতে থাকে। সেটা বিভিন্নভাবে এডজাস্ট করা হয়। আমাদের একটাই উপায় আছে, বাড়ি ভাতা কমিয়ে আগের মতো ৪০ শতাংশে নিয়ে যদি মূল মজুরিতে বেড়ে যায় এটা নিয়ে আমরা আলোচনা করবো। কীভাবে সমাধান করা যায়, সেই চেষ্টা আমরা করবো।

তিনি আরো জানান, রোববার শ্রম মন্ত্রণালয়ে আবারও সরকার, মালিক পক্ষ এবং শ্রমিক নেতাদের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। সেই বৈঠকে সমাধানের উপায় বের করার চেষ্টা করা হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে।

অন্যান্য সংবাদ