Skip to main content

যুক্তরাষ্ট্রে ৭০ বছর পর মরণোত্তর ক্ষমা পেলেন ভুলক্রমে সাজার শিকার ৪ কৃষ্ণাঙ্গ

যুক্তরাষ্ট্রে ভুলক্রমে সাজার শিকার হয়ে প্রায় ৭০ বছর ধরে দোষী স্বীকৃত ছিলেন ৪জন কৃষ্ণাঙ্গ। তাদের বিরুদ্ধে ১৯৪৯ সালে একজন শ্বেতাঙ্গকে ধর্ষণের অভিযোগে কারাদ- দেয়া হয়েছিলো। বন্দিরা কারাগারেই নিহত হয়েছেন বলে ফ্লোরিডার প্রাদেশিক গভর্নরের অফিস থেকে জানানো হয়েছে। আল-জাজিরা

ফ্লোরিডার গ্রোভল্যান্ড শহরের বাসিন্দা কৃষ্ণাঙ্গদের অপরাধের মিথ্যা স্বীকারোক্তির জন্য অমানবিকভাবে নির্যাতন করে কারাগারে পাঠানো হয়েছিলো এবং পরে তারা বন্দি থাকাবস্থায়ই নিহত হন। ভুলক্রমে জেলের শিকার কৃষ্ণাঙ্গদের মরণোত্তর ক্ষমা ঘোষণা করতে শুক্রবার ফ্লোরিডার গভর্নরের আয়োজনে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে তাদের ক্ষমা ষোষণা করেন গভর্নর রন দেসান্তিস।

‘গ্রোভল্যান্ড ফোর’ নামে এই কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর অন্যায় আচরণের বিষয়টি সম্প্রতি একটি বইয়ে স্থান পেয়েছে। সন্দেহজনক তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে ভুক্তভোগিদের কারাগারে পাঠানোর বিষয়টিতে ফ্লোরিডার ইতিহাস ক্রমে কলুষিত হচ্ছে। কোন প্রকার সরাসরি প্রমাণ না থাকা সত্ত্বেও তাদের ওপর এতটাই নির্যাতন করা হয়েছিলো যে, কারাগারে পাঠানোর আগেই একজনের মৃত্যু হয়েছিলো বলে বইটিতে লেখা হয়েছে।

যে অভিযোগে কৃষ্ণাঙ্গদের কারাগারে পাঠানো হয়েছিলো তাতে তারা কোনভাবেই দায়ী ছিলোনা কারণ, আসলে ধর্ষণের কোন ঘটনাই অভিযোগকারীর নারীর সঙ্গে ঘটেনি বলে দেসান্তিস জানিয়েছেন।

 

অন্যান্য সংবাদ