Skip to main content

বেসরকারি চাকরির শর্তাবলি আরও সুন্দর ও চাহিদামুখী হলে সরকারি চাকরিতে তরুণদের ঝোঁক কমবে

আমিরুল ইসলাম: তরুণদের বেসরকারি চাকরির প্রতি আগ্রহী করে তোলার জন্য চাকরির নিশ্চয়তা ও  চাকরিকালীন সুবিধা আরও বাড়াতে হবে বলে মনে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। 
এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, বিসিএসসহ অন্যান্য সরকারি চাকরিতে তরুণদের ঝুঁকে যাওয়ার একটা বড় কারণ হলো নিশ্চয়তা। সরকারি চাকরি হয়ে গেলে হঠাৎ করে চাকরি চলে যাওয়ার ঘটনা কম ঘটে। আমাদের দেশের বেসরকারি খাতের সম্প্রসারণ ঘটছে। বেসরকারি খাতে চাকরির যে শর্তাবলী ও নিশ্চয়তা সেগুলো তুলনামূলকভাবে এখনো অনেক কম। আমার মনে হয় বেসরকারি খাতে যারা উদ্যোক্তা আছেন তাদের এ বিষয়ে দৃষ্টি রাখা দরকার মেধাবী ছেলেমেয়েদেরকে  বেসরকারি খাতের দিকে আকৃষ্ট করতে হলে চাকরির শর্তাবলী আরও সুন্দর করতে হবে এবং তরুণদের চাহিদামুখী করতে হবে। তারা চায় একটা মোটামুটি ধরনের নিশ্চয়তা। সেই নিশ্চয়তাটা তো বেসরকারিখাতে অনেক সময় পাওয়া যায় না। যার জন্য সরকারি চাকরির দিকে আমাদের তরুণ ছেলেমেয়েদের ঝুঁকটা বেশি বলে আমরা লক্ষ্য করি। 
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বেসরকারি চাকরি কেউ যদি না যায় তাকেতো আর জোর করে নেয়া যাবে না। চাকরির শর্তাবলী আরও গ্রহণযোগ্য করতে পারলে তরুণদের বেসরকারি চাকরির দিকে আগ্রহ বাড়বে। তুলনামূলকভাবে বেতন-ভাতা বেশি করতে হবে। বেসরকারি চাকরিতে পেনশন নেই বলে তাদের চাকরিকালীন সুবিধা আরও  যথেষ্ট বাড়াতে হবে বলেও মনে করেণ এই শিক্ষাবিদ।

অন্যান্য সংবাদ