Skip to main content

বিএনপি নেত্রী ফাহিমার দাবি, দুর্নীতি আর মিথ্যাচার আওয়ামী লীগের কাজ 

Article Highlights

‘যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে তখনই শেয়ার বাজারে ধস নামে। আওয়ামী লীগের আগের শাসনামলে ৫ হাজার কোটি টাকা লোপাট হয়ে গেলো। দেশ দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে আপাদমস্তক। আজকে অর্থনীতিরও এমন ভঙ্গুর দশা, আগে কখনো এমনটি হয়নি।’

‘আইএসআই’ এর সঙ্গে বিএনপির সম্পর্ক’ জাতিকে বিভ্রান্ত করার জন্য আওয়ামী লীগের প্রোপাগাণ্ডা বলে মন্তব্য করেছেন, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফাহিমা নাসরিন মুন্নি। তিনি বলেন, মানুষ তো তাদেরকে ভোট দেয়নি, রাতের আধারে নিজেরাই ব্যালটবাক্স ভর্তি করেছে। আওয়ামী লীগের স্লিপ ছাড়া কাউকে ভোট দিতে দেওয়া হয়নি। 

ফাহিমা নাসরিন আরো বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের ভোট ২৯ ডিসেম্বর দিয়ে তারা বড়াই করে বলছে, বিএনপিকে নাকি মানুষ ভোট দেয়নি। তাই শুধু ৬টি আসনে জয় পেয়েছে। এ কথা তো কোনো প্রাণীও বিশ্বাস করে না। বৃহস্পতিবার আরটিভির গোলটেবিল বৈঠকে অ্যাডভোকেট ফাহিমা এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সঙ্গে শেয়ার বাজারের আত্মার সম্পর্ক আছে বলেও মন্তব্য করে এই আইনজীবী বলেন, যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে তখনই শেয়ার বাজারে ধস নামে। আওয়ামী লীগের আগের শাসনামলে ৫ হাজার কোটি টাকা লোপাট হয়ে গেলো। দেশ দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে আপাদমস্তক। আজকে অর্থনীতিরও এমন ভঙ্গুর দশা, আগে কখনো এমনটি হয়নি। 

অ্যাডভোকেট ফাহিমা বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনে ৭ থেকে ১০ শতাংশ ভোট পড়েছিলো। কথাটি বিভিন্ন মহলে আলোচনায় চলে আসায় আওয়ামী লীগ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির সেই কলঙ্ককে এবার ছাপিয়ে উঠতে চেয়েছিলো। ওটা করতে গিয়ে দেখা গেলো, ৯৯ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে, কোনো কোনো কেন্দ্রে ১০০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে। ৯৮/৯৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরাই। উনারা ২ লাখের উপরে, আর আমাদের প্রার্থীরা শুধু ২০০/৩০০ ভোট পেয়েছে। প্রহসনের একটি সীমা আছে তো। ১০০ শতাংশ ভোট কেমনে কাস্ট হবে? ঐদিন কি কেউ বিদেশে যায়নি? ঐ দিন কি কেউ হাসপাতালে যায়নি?


 

অন্যান্য সংবাদ