Skip to main content

বরিশালে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে ব্যবস্থা নেয়ার কঠোর নির্দেশ দিলেন মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহ

Article Highlights

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বরিশাল নগরীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের বিশৃঙ্খলাকারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বরিশাল নগরীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের বিশৃঙ্খলাকারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

মেয়র বলেন, বিশৃঙ্খলাকারীদের জায়গা বরিশাল ছাত্রলীগ কিংবা আওয়ামী লীগে হবেনা। আমরা শান্তির রাজনীতিতে বিশ্বাসি; তাই বরিশালের আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের রাজনীতি পূর্বেও শৃঙ্খলা ও ঐক্যবদ্ধ ছিলো, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। কোন বিশৃঙ্খলাকারীদের আওয়ামী লীগ কিংবা ছাত্রলীগে স্থান হবেনা।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বরিশাল নগরীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করাকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে সোহেল চত্বরস্থ এলাকায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ওবায়দুল সেরনিয়াবাত ও সাইফুল সেরনিয়াবাত নামে জেলা ছাত্রলীগের দুই নেতা আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জানান, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাকের অনুসারী জেলা ছাত্রলীগ নেতা ওবায়দুল সেরনিয়াবাত ও জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সাইফুল সেরনিয়াবাত সোহেল চত্বরস্থ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয় সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসেন। এসময় শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করাকে কেন্দ্র করে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব হোসেন খান ও মহানগর ছাত্রলীগের বিতর্কিত কর্মী রইজ আহম্মেদ মান্নার সাথে সাইফুল সেরনিয়াবাত ও ওবায়দুল সেরনিয়াবাতের মধ্যে বাগ্বিতন্ডার একপর্যায়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

অন্যান্য সংবাদ