Skip to main content

চুত্রা পাতার আঘাত ও মানবাধিকার

বাংলা মোটর মোড়। সিগনাল ছেড়েছে। আমার গাড়ির সামনের ট্রাকটি ডান দিকে মোড় নিচ্ছে, কারওয়ান বাজারের দিকে। আমিও সেইদিকেই যাবো। ডান দিকে বাঁক নিতে নিতেই হঠাৎ ব্রেক কষে দাঁড়িয়ে গেলো ট্রাক। এমন আচমকা ব্রেক কষায় আমার ড্রাইভার ভ্যাবাচ্যাকা খেলেও দ্রুত ব্রেক কষে গাড়ি সামলে নিলো। কী হয়েছে বুঝার চেষ্টা করার আগেই দেখি ট্রাকের সামনে দিয়ে একটি মোটরসাইকেল ৯০ ডিগ্রি এঙ্গেলে বেরিয়ে এসে বাঁ দিকে মানে শাহবাগের দিকে উড়ে চলে গেলো। সেই ধাক্কা সামলানোর আগেই দেখি এবার আমার গাড়ির সামনে আর ট্রাকের ঠিক পেছন এর সামান্য ফাঁক দিয়ে আরেকটি মোটরসাইকেল উড়ে বাঁ দিকে আগের মোটরসাইকেল এর পিছু পিছু চলে গেলো। যদি ট্রাক ব্রেক কষতে না পারতো তাহলে আমার গাড়িও ব্রেক করতো না, আর তাতে একটি মোটরসাইকেল পড়তো ট্রাকের নীচে, আরেকটি পড়তো আমার গাড়ির নীচে। দুইটি গাড়িই ব্রেক কষে কোন রকমে দাঁড়িয়ে পড়ায় দুটি মোটরসাইকেলই গাড়ির ডান দিক দিয়ে এসে সামনে দিয়ে আড়াআড়ি ক্রস করে উড়ে বাঁয়ে চলে যেতে পারলো। ওরাও বাঁচলো আমরাও বাঁচলাম।
কিন্তু যদি আজ দুর্ঘটনা ঘটতো তাহলে দায়ি হতো ট্রাক এবং আমার গাড়ি। কারণ ওরা পড়তো গাড়ির নীচে। কেউ বুঝতো না ওরা কেমন ভয়ংকরভাবে মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলো। এই অসভ্যতার প্রতিকার কী? জাতির কাছে প্রশ্ন ,  এমন বিশ্রী অভিজ্ঞতার প্রেক্ষিতে এই সব ইতর চালকদের চুত্রা পাতা দিয়ে খানিকক্ষণ পাছায় আঘাত করিলে সেটা কি মানবাধিকার ও আইনশৃঙ্খলার প্রবল লঙ্ঘন হইবে?  ফেসবুক থেকে