Skip to main content

কুমিল্লার জয়ের জন্য দরকার ১২৫ রান

ডান হাতের কুনুইয়ের ব্যথায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতের ফ্লাইটে দেশে ফিরে গেছেন ভিক্টোরিয়ানস অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। তার পরিবর্তে সবার চোখ যখন তামিম ইকবালের দিকে তখন ইমরুল কায়েসকে টসে পাঠিয়ে চমক দিল কুমিল্লা।

চলতি আসরে দুই দলই খেলেছে দুই ম্যাচ। দুটির একটিতে জয় আর একটিতে হার দু’দলের। আজ উতরে যাওয়ার মিশন দুই দলের সামনেই পঞ্চম দিনের দ্বিতীয় খেলায় টসে জিতে রাজশাহীর বিপক্ষে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস।  

দ্রুত ২ উইকেট হারানোর আগে অবশ্য রাজশাহীকে দারুণ শুরু এনে দিয়েছিলেন ব্যাটিং অর্ডারে ‘প্রোমোশন’ পেয়ে ওপেনিংয়ে নামা মিরাজ। আগের ম্যাচে ওয়ান ডাউনে নামা রাজশাহী অধিনায়ক ওপেনিংয়ে নেমেও করেন ঝড়ো শুরু। ১৭ বলে ৬ বাউন্ডারি করা মিরাজকে ফেরান শহীদ আফ্রিদি। পাকিস্তানি অলরাউন্ডার হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনাও জাগিয়েছিলেন পরের বলে লরি এভান্সকে (০) এলবিডাব্লিউ করে।

 

তাদের আউটের আগে ১৬ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মোহাম্মদ হাফিজ। জাকির হাসান ২৬ বলে করে যান ২৭ রান। তবে রাজশাহীর রান ১২৪ পর্যন্ত যাওয়ার পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান ইসুরু উদানার। শ্রীলঙ্কান এই পেসারের ব্যাট থেকে এসেছে ইনিংস সর্বোচ্চ ৩২ রান। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে ৩০ বলের ইনিংসটি সাজান ৫ চার ও এক ছক্কায়।

বোলিংয়ে চমৎকার এক দিন পার করেছেন আফ্রিদি। পাকিস্তানি স্পিনার ৪ ওভারে মাত্র ১০ রান দিয়ে পেয়েছেন ৩ উইকেট, ছিল একটি মেডেন ওভারও। ডসন, সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার প্রত্যেকে নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।

পয়েন্ট তালিকায় দু’দলই আছে শেষের দিকে। কুমিল্লার অবস্থান পাঁচ আর রাজশাহীর অবস্থান ছয় নম্বরে।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস
তামিম ইকবাল, এভিন লুইস, লিয়াম ডসন, এনামুল হক বিজয়, ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), শোয়েব মালিক, শহিদ আফ্রিদি, মেহেদি হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি ও মোহাম্মদ শহিদ।

রাজশাহী কিংস
মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ হাফিজ, ফজলে রাব্বি, লরি ইভেনস, মেহেদী হাসান মিরাজ, জাকির হাসান, ইসুরু উদানা, আরাফাত সানি, কাইস আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান।
এমআর/ এমকে