Skip to main content
Title Prefix
নির্বাচনে তথ্য সংগ্রহে বিএনপির ৩ কমিটি, ১৮৩ অভিযোগ জমা

আলাল বললেন, বরিশাল কারাগারে তাবুর মধ্যে বন্দিদের রাখা হচ্ছে

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বরিশালে বিএনপির প্রায় ১হাজার ৬শ নেতাকর্মী জেল খানার ভেতরে তাবু টনিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। তিনি বলেন, গায়েবী মামলায় নির্বাচন পরবর্তী তার ভাই ও ভগ্নেসহ ১৪জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বরিশাল জেলে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত বন্দি থাকায় অতিরিক্ত বন্দিদের এই শীতে জেলের ভেতরে আলাদা তাবু টানিয়ে রাখা হচ্ছে।  
বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে জানা গেছে, ভোট কেন্দ্রে নানা অনিয়মের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ধানের শীষের ১৮৩ আসনের প্রার্থী একাদশ সংসদ নির্বাচনে অনিয়ম ও ভোট কারচুপির তথ্য নিয়ে তৈরি প্রতিবেদন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন।

আলাল জানান, জমা প্রতিবেদনে নির্বাচনের আগে ও পরে এবং ভোটের দিন যেসব নেতাকর্মী গ্রেফতার, সহিংসতায় আহত ও নিহত হয়েছেন তাদের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। একই সঙ্গে নির্বাচনের আগের রাতে এবং ভোটের দিন যেসব ভোট কেন্দ্রে অনিয়ম ও  কারচুপি হয়েছে তার ভিডিও এবং লিখিত বর্ণনাও রয়েছে প্রতিবেদনে।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। আমরা শুধু মাত্র বিএনপির প্রার্থীদের অভিযোগগুলো নিচ্ছি। ঐক্যফ্রন্ট ও অন্যান্য শরীকদলগুলো তাদের মতো করে আলাদাভাবে তথ্য সংগ্রহ করছে। এই তথ্যগুলো একত্রে করে আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে তা প্রকাশ করবো। 

আলাল বলেন, এছাড়া প্রতিটি আসনের প্রার্থীদেরকে স্ব স্ব জেলায় নির্বাচনী ট্রাইবুন্যালের মামলার কথা বলা হয়েছে। এই সেল গঠন করার পর থেকে আমরা আশানুরুপ সাড়া পাচ্ছি। ইতিমধ্যে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শতাধিক অভিযোগ জমা পড়েছে। 

এক প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচনের সার্বিক বিষয় নিয়ে কাজ করছি। তবে  বেশী যে অভিযোগ আসছে তা হলো নির্বাচন হয়েছে ২৯ তারিখ রাতে। ইশা নামাজের পর থেকে শুরু হয়েছে চলেছে রাত ২-৩টা পর্যন্ত। পরদিন ৩০ ডিসেম্বর  ছিলো লোক দেখানো। কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের যে উপস্থিতি যা  দৃশ্যমান লাইনে বিভিন্ন জায়গায় দেখা গেছে তার বেশীর ভাগ লোকেরাই সরকারি দল ও লাঙলের । তারা ঘুরে ঘুরে লাইনে দাঁড়ায়ছে। 

আলাল বলেন, আগামী ১৫ তারিখের মধ্যে নির্বাচন সংক্রান্ত অভিযোগ জমা দিতে বলা হয়েছে। আশা করছি তার মধ্যেই হয়ে যাবে।  প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীকে আহ্বায়ক করে ৬ সদস্যের আরেকটি কমিটি করা হয়েছে। স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরীন সুলতানাকে আহ্বায়ক করে আরেকটি কমিটি করেছে। এ কমিটি নারী প্রার্থী ও নেতাকর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা, মামলার তথ্য সংগ্রহসহ আরও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাজ করছে।
 

অন্যান্য সংবাদ