Skip to main content

আর্সেনিক রোগীর সংখ্যা বাড়ছে রাজবাড়ীতে

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে আর্সেনিক রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এরই মধ্যে এই উপজেলার ২৮টি গ্রামে টিউবওয়েলের পানিতে আর্সেনিক শনাক্ত করেছে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর। সমস্যা সমাধানের কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসন। সূত্র: একাত্তর টিভি।

বালিয়াকান্দির বহরপুর ইউনিয়নের বাবলাতলা গ্রামে বসবাস কমপক্ষে ৩০০ পরিবারের। এর মধ্যে ওসমান মোল্লা, ফরিদ সরদার ও রোকেয়াবেগমসহ কয়েক পরিবারের সব সদস্যই আর্সেনিকে আক্রান্ত। উপজেলার আরো ২৭টি গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে রয়েছে আর্সেনিকের রোগী। আক্রান্তরা বলছেন, না জেনে দীর্ঘদিন আর্সেনিকযুক্ত পানি খেয়ে এই অবস্থা তাদের। তারা আরো জানায়, ২০০৫ সালে আর্সেনিকযুক্ত বেশ কয়েকটি টিউবওয়েল শনাক্ত করা হয়েছিলো, কিন্তু এর সমাধান করেনি কেউই।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানালেন, গতবছরের জুন থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত তারা ২৮টি গ্রামের সন্ধান পেয়েছেন। আর তাই আর্সেনিকযুক্ত পানি না খেতে সবাইকে মাইকিং করে সচেতন করা হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে এবং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের এর মাধ্যমেও জনগণকে অবহিত করার কথা জানান তিনি।

রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ রহিম বক্স জানালেন, গত একবছরে বালিয়াকান্দি উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩৮ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। কমিউনিটি ক্লিনিক, জেলা হাসপাতাল, মেডিকেল কলেজে এ ব্যাপারে অভিজ্ঞরা পরামর্শও দিয়ে থাকেন বলে জানান তিনি।

বালিয়াকান্দি উপজেলায় জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এই পর্যন্ত ৩ হাজার ২০০ টিউবওয়েল বসানো হয়েছে। এছাড়াও ব্যক্তিগতভাবে বসানো হয়েছে প্রায় ২৫ হাজার টিউবওয়েল। এর মধ্যে ৭টি ইউনিয়নের ২৮টি গ্রামে প্রায় এক হাজার টিউবওয়েলে আর্সেনিক পাওয়া গেছে।