Skip to main content

অবসরে বই পড়বো ও লেখালেখি করবো: মুহিত

Article Highlights

সদ্য বিদায়ী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, ‘এখন থেকে অবসর সময়ে বই পড়বো ও লেখালেখি করবো। আমার কালেকশানে ৫০ হাজার বই আছে। এগুলো সব পড়া হয়নি। চিন্তা করছি অবসরে গিয়ে এগুলো কিছু কিছু পড়তে শুরু করবো। আরেকটি কাজ আমি করবো।  সেটা হচ্ছে এই পড়ার ওপরে আমি লেখালেখি করবো।’

সদ্য বিদায়ী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, ‘এখন থেকে অবসর সময়ে বই পড়বো ও লেখালেখি করবো। আমার কালেকশানে ৫০ হাজার বই আছে। এগুলো সব পড়া হয়নি। চিন্তা করছি অবসরে গিয়ে এগুলো কিছু কিছু পড়তে শুরু করবো। আরেকটি কাজ আমি করবো।  সেটা হচ্ছে এই পড়ার ওপরে আমি লেখালেখি করবো।’

অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা কর্মচারীদের পক্ষ থেকে দেওয়া বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মুহিত এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘আমাকে ঝেঁটিয়ে  বিদায় করা হয়নি। আমি নিজ ইচ্ছায় অবসরে যাচ্ছি। এটি একটি বিরল সম্মান ও সৌভাগ্যও বটে। ৮৫ বছর বয়সেও বাংলাদেশের মতো একটি জটিল রাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের মতো একটি জটিল মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছি। গত ১০ বছরে বাংলাদেশ একটি পর্যায়ে উন্নীত হয়েছে। এই ১০ বছর সুচারুভাবে সরকার পরিচালনা করেছি।’

বিদায়ী অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘একসময় বাংলাদেশের পরিচয় ছিল ভিখারি দেশ হিসেবে। আজ বাংলাদেশ  সে অবস্থানে নেই। আল্লাহর রহমত এবং সহকর্মীদের সহযোগিতা এই দুর্লভ কাজ করার ক্ষেত্রে প্রধান ভূমিকা রেখেছে। আমি বিশ্বাস করি, আগামী ৫ বছরে বাংলাদেশ যে অবস্থানে যাবে এবং বাংলাদেশের  যে অগ্রগতি সূচিত হবে  সেখান থেকে নামিয়ে আনার সাধ্য কারও হবে না।’ 

অর্থ সচিব আব্দুর রওফ তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিদায়ী প্রতিমন্ত্রী এবং নতুন মন্ত্রিসভায় নিয়োগ পাওয়া পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান, সিজিএ মুসলিম  চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

অন্যান্য সংবাদ